বিএনপিকে সংলাপের আমন্ত্রণ, অংশ না নেয়ার ঘোষণা ফখরুলের

প্রকাশিত: ১০:২১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০২২

অনলাইন ডেস্ক ; নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে চলমান প্রেসিডেন্টের সংলাপে রাজপথের বিরোধী দল বিএনপিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আগামী ১২ জানুয়ারি বিকেল চারটায় তাদের সঙ্গে সংলাপের অংশ নিতে বলা হয়েছে। আমন্ত্রণ জানানো হলেও বিএনপি আগের সিদ্ধান্তেই অনড় আছে বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

একই দিন সন্ধ্যা ছয়টায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টিকে (এনপিপি) সংলাপের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বুধবার প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে বিএনপি ও এনপিপিকে সংলাপের আমন্ত্রণপত্র পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

ফখরুল বলেন, এই সংলাপ অর্থহীন। অর্থহীন কোন সংলাপে বিএনপি অংশ নেবে না। এর আগেও প্রেসিডেন্টের এই সংলাপ শুরু হওয়ার পর বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ‘অর্থহীন’ কোনো সংলাপে অংশ না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ওই বৈঠকের পর বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়, তাদের প্রধান অগ্রাধিকার নির্বাচনকালীন নিরেপক্ষ সরকার। নির্বাচন কমিশন নিয়ে তাদের তেমন বলার কিছু নেই।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) ও ইসলামি আন্দোলন সংলাপে অংশ নেয়নি। তারা বলেছে, ২০১২ ও ২০১৬ সালে দুদফা সংলাপে অংশ নিয়ে তারা যে সব প্রস্তাব দিয়েছে, সেগুলোর কোনোটিরই মূল্যায়ন করা হয়নি। ফলে নতুন করে বলার কিছু নেই। গতকাল লিবারেল ডেমোক্রেটি পার্টির (এলডিপি) সভাপতি কর্ণেল (অব.) অলি আহমদও জানিয়ে দিয়েছেন তার দল সংলাপে অংশগ্রহণ করবে না।

কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি। তার আগেই নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। এজন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনার খুঁজে পেতে একটি সার্চ কমিটি তৈরি হবে। এই সার্চ কমিটি গঠনে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ করছেন প্রেসিডেন্ট মো. আব্দুল হামিদ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!