শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভুমিকা রাখছেন ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়

প্রকাশিত: ৬:১৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২০

জোটন চন্দ্র ঘোষ,হালুয়াঘাট : হালুয়াঘাট ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়টি পাহাড়ী জনপদের প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভুমিকা পালন করছেন প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নান।

জানা যায়, হালুয়াঘাট উপজেলার গাজীরভিটা ইউনিয়নের শিমুলকুচি গ্রামে বিশিষ্ঠ শিক্ষাবিদ ও সমাজ সেবক প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নানের হস্তক্ষেপে পাল্টে গেছে ভাষা শহীদ আব্দুল জব্বার স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামগ্রিক চিত্র। গারো পাহাড়ের কূল ঘেঁষে মনোরম পরিবেশে অবস্থিত বিদ্যালয়টি। যেখানে শিক্ষক আব্দুল মান্নানের হাতের ছোয়ায় প্রতিনিয়ত বৃদ্ধিপাচ্ছে উন্নয়নের ছোঁয়া। বিদ্যালয়টি বায়ান্নের ভাষা আন্দোলনে নিহত শহীদ আব্দুল জব্বারের স্মৃতি প্রতিষ্ঠিত করতে ১৯৯৫ সালে প্রয়াত সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট প্রমোদ মানকিন স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন।

প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের অক্ষরজ্ঞানহীন মানুষের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে সকলের সহযোগীতায় ৬১জন শিক্ষার্থী নিয়ে পাঠদান শুরু করেন। যৌবনে উদ্বীপ্ত মনে নিজের শ্রম ও মেধা দিয়ে তিল তিল করে গড়ে তোলেন আজকের এই সফল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। র্জীর্ণদশা থেকে বেড়িয়ে আজ অনেকটাই স্বাবলম্বী হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। নেই কোন ক্লাস রুমের অভাব,নেই কোন আসবাবপত্রের অভাব সফলভাবে পরিচালনা করছেন প্রতিষ্ঠানটি।
বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটিতে শিক্ষার্থী সংখ্যা প্রায় সাড়ে পাঁচশত। শিক্ষক কর্মচারী মিলে মোট ১৭জন স্টাফ পাঠদান কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। প্রতিবছরই শিক্ষার্থীরা বৃত্তি পাচ্ছেন। সর্বত্র ছড়িয়ে পরেছে প্রতিষ্ঠনটির সুনাম। জেএসসিতে গত দুই বৎসরে বৃত্তি পেয়েছে ১১জন। প্রতিষ্ঠানটিতে দু’তলা বিল্ডিং ১টি, চারতলা ভিট বিশিষ্ট ১তলা ভবন ও চারতলা ভিট বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ কাজ চলমান, শহীদ মিনার ১টি। শৌচাগারের সংখ্যা বেশ কয়েকটি।

প্রধান শিক্ষক আব্দুল মান্নানের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, বিভিন্ন সময়ে প্রয়াত সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট প্রমোদ মানকিন স্যারের সার্বিক সহযোগিতায় বিদ্যালয়ের উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। তিনি জীবিত থাকলে বিদ্যালয়টি হালুয়াঘাটের একটি মডেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে রুপান্তরিত হত। তার সুযোগ্য সন্তান হালুয়াঘাটের সকলের প্রিয় ব্যক্তি বর্তমান সংসদ সদস্য মি.জুয়েল আরেং প্রতিষ্ঠানটিকে আধুনিক প্রতিষ্ঠান গড়তে পিতার আর্দশের মতই তিনিও সার্বিক সহযোগীতা করবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন। আমাদের চেষ্টা রয়েছে ২০২০ সালের মাঝে প্রতিষ্ঠানটিকে কলেজে উন্নীত করার।

শিক্ষক আব্দুল মান্নান তিনি গফরগাঁও ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৩ সালে এসএসসি ও ১৯৮৭ সনে গফরগাঁও সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ১৯৯০ সনে ময়মনসিংহ পলিট্যাকনিক ইনস্টিটউট থেকে ডিপ্লোমা ইনজিনিয়ারিং সম্পন্ন করেন, ১৯৯৩ সনে গফরগাঁও সরকারি কলেজ থেকে ডিগ্রি পাস করেন । ২০০৪ সনে বিএড ও ২০১৩ সনে এমএড কোর্স সম্পন্ন করেন। প্রতিষ্ঠানটির উত্তর উত্তর সাফল্যের জন্য সকলের নিকট সহযোগীতা প্রত্যাশা করেন।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!