বাগেরহাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী, আলোচনায় ৫ জন

প্রকাশিত: ১:৪২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২০
বাগেরহাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচন: আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী, আলোচনায় ৫ জন

আতিয়ার রহমান,খুলনা : বাগেরহাট-৪ (মোড়েলগঞ্জ-শরণখোলা) আসনের উপ-নির্বাচন ২১ মার্চ । ইতোমধ্যে নির্বাচনকে ঘিরে এলাকার মোড়ে মোড়ে চায়ের স্টলে আলোচনা শুরু হয়েছে। উপ-নির্বাচনে আ’লীগের একাধিক নেতার নামও শোনা যাচ্ছে। এদের মধ্যে চার নেতা দলীয় মনোনয়ন পেতে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচারণা করছেন। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সব থেকে বেশি মনোনয়ন প্রত্যাশীর পক্ষে সমর্থকরা প্রচরণা করছেন। এদিকে আ’লীগের দায়িত্বশীল নেতারা আসনটিতে দলীয় মনোনয়ন নির্ধারণে আরও সময় লাগবে বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

বাগেরহাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বঙ্গবন্ধু’র ছোট ভাই শহিদ শেখ আবু নাসেরের ছোট ছেলে শেখ বেলাল উদ্দিন বাবু, আসনটির প্রয়াত সাংসদ ডাঃ মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগ এবং আ’লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আমিরুল আলম মিলন।

সাবেক ছাএ নেতা সাবেক সদস্য বাংলাদেশ আ’লীগ যুবলীগ, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক এস এম রাজু বলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি বাংলার রাখাল রাজা জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আর্দশ বুকে ধারন করে এবং বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেএী দেশরতœ শেখ হাসিনার ভিষণ ২০২১, ২০৪১ খুদা দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন, এই উন্নয়ানের ধারা অব্যাহত রাখতে আধুনিক বাগেরহাট গড়ার লক্ষ্যে আপনাদের সেবা করার সুযোগ ও সকলের দোয়া নিয়ে আমি বাগেরহাটের সন্তান হিসাবে নির্বাচিত হলে গরিব দু:খি মানুষের সপ্ন পুরন করব, রাস্তা ঘাট স্কুল, মাদ্যাসা, মসজিদ, মন্দীর নির্মান করব ,তিনি আরও বলেন আমি দলের পক্ষথেকে মনোনয়ন কিনেছি আশাকরি দল আমাকে নৌকার টিকিট দিবে। আমি পাব, কারন আমার নামে কোন দুরনিতি ও খারাপ ইমেজ নেই এবং আমি মুক্তিযুদ্ধা পরিবারের সন্তান সে কারনে আমি শত ভাগ আশাবাদি দল আমাকে নৌকা পতিক দিবে।

সম্প্রতি আসনের সাবেক সাংসদ মারা যাওয়ার পরই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। পরবর্তী ২১ মার্চ নির্ধারণ করা হয় উপ-নির্বাচনের সময়। পরবর্তী সাংসদকে ঘিরে কৌতূহল সবার মধ্যে। এরই মধ্যে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা কেন্দ্রে দৌড়-ঝাঁপ শুরু করেছেন। অনেকেই লবিংয়ের জন্য রাজধানীতেও অবস্থান করছেন বলে জানা যায়। তবে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে শেখ পরিবারের সদস্য হিসেবে শেখ বেলাল উদ্দিন বাবু সব থেকে বেশি আলোচিত। কারণ বাগেরহাটের অপর দু’টি আসনে এই পরিবারের জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

উপ-নির্বাচনের বিষয়ে বাগেরহাট জেলার দায়িত্বশীল নেতারা কোন বক্তব্য দিতে রাজি না হলে তৃণমূলের কর্মীরা জানান, শেখ বেলালকে রাজনীতিতে আগে দেখা না গেলেও বর্তমানে সরব হচ্ছেন তিনি। শেখ পরিবারের সদস্য হওয়ায় বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ-শরণখোলা এলাকায় তার জনপ্রিয়তা আছে। অপর দিকে তরুণ ও যুবকদের মধ্যে জনপ্রিয়তা এগিয়ে এস ,এম রাজু ।

উল্লেখ্য. মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ১৬টি এবং শরণখোলা উপজেলার ৪টি মিলিয়ে ২০টি ইউনিয়ন এবং মোড়েলগঞ্জ পৌরসভা রয়েছে আসনটিতে। মোট ভোটার প্রায় ৩ লাখ। উপ-নির্বাচনে আগামী ১৯ ফেব্র“য়ারি মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময়, ২৩ ফেব্র“য়ারি মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই, ২৪ থেকে ২৬ ফেব্র“য়ারি বাছাইয়ে রিটার্নিং অফিসারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল, আপিল নিষ্পত্তি ২৮ ফেব্র“য়ারি । ২৯ ফেব্র“য়ারি প্রার্থিতা প্রত্যাহার। ১ মার্চ প্রতীক বরাদ্দ ও ২১ মার্চ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।এই নিয়ে এলাকায় সাধারন মানুষের মধ্য ভোটের হাওয়া লাগছে ,আর বিভিন্ন চা দোকান চা খাওয়ানোর জন্য নেতারা ব্যাস্ত সময় চা খেতে টাকা লাগছেনা সাধারন মানুষের কথা তবে কে হবে নৌাকার মাঝি এই নিয়ে চলছে আলোচনা ।