যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের বিরুদ্ধে ফের কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার অভিযোগ

প্রকাশিত: ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক ; যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের রাস্তায় পুলিশ বারবার নিস্তেজ করে আটকের কয়েক ঘন্টা পর মারা গেছেন ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা প্যাট্রিস কুলার্সের চাচাতো ভাই কিনান অ্যান্ডারসন।

ব্রিটিশ সংবাদ সংস্থা বিবিসি জানিয়েছে, কিনান অ্যান্ডারসন ৩১ বছর বয়সী একজন শিক্ষক ও বাবা। তিনি সান্তা মনিকার একটি হাসপাতালে মারা গেছেন।

লস এঞ্জেলেস পুলিশ ডিপার্টমেন্ট (এলএপিডি) ৩ জানুয়ারির এনকাউন্টার অফিসারের বডি ক্যামেরার ফুটেজ প্রকাশ করেছে। এতে দেখা যাচ্ছে, যখন অফিসাররা তাকে আটক করছেন তখন অ্যান্ডারসন সাহায্যের জন্য আকুতি জানাচ্ছেন।

লস অ্যাঞ্জেলেসের ভেনিস এলাকায় একটি ট্র্যাফিক দুর্ঘটনার জন্য স্থানীয় সময় ৩ জানুয়ারি প্রায় ৩টার দিকে অ্যান্ডারসনকে ডেকেছিল পুলিশ।

বুধবার(১১ জানুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ প্রধান মিশেল মুর বলেছেন, অ্যান্ডারসন ‘তাদের অনুমতি ছাড়াই অন্য ব্যক্তির গাড়িতে উঠে’ ঘটনাস্থল থেকে পালানোর চেষ্টা করেছিলেন।

ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, অ্যান্ডারসনের কাছে যখন পুলিশ পৌঁছান তখন তিনি যন্ত্রণায় ভুগছিলেন। প্রধান কর্মকর্তাকে বলছেন, ‘কেউ আমাকে মেরে ফেলার চেষ্টা করছে,’ যদিও ক্যামেরায় কোনো দৃশ্যমান হুমকি দেখা যায় নি।

প্রাথমিকভাবে অ্যান্ডারসন পুলিশের নির্দেশ মতো বসেছিলেন। কিন্তু আরও পুলিশ আসার সঙ্গে সঙ্গে তিনি উঠে যান। এবং তাকে থামানোর অনুরোধ উপেক্ষা করে রাস্তায় দৌড়ে যান।

এরপর পুলিশ যখন অ্যান্ডারসনের কাছে পৌঁছায় এবং তাকে আটক করার চেষ্টা করে, তিনি প্রাথমিকভাবে চিৎকার করার আগে অনুনয় করে বলেন, ‘দয়া করে সাহায্য করুন’ এবং ‘তারা আমাকে জর্জ ফ্লয়েড করার চেষ্টা করছে!’

মূলত তার অনুরোধে তিনি উল্লেখ করেছেন যে ২০২০ সালের মে মাসে মিনেসোটার মিনিয়াপোলিসে একজন পুলিশ সদস্যের হাতে একজন কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছিল।

এক কর্মকর্তা অ্যান্ডারসনকে একাধিকবার সতর্ক করার পর স্টান বন্দুকটি প্রথমবার তার ওপর প্রায় ৩০ সেকেন্ড ব্যবহার করা হয়। এরপর অন্য অফিসাররা তাকে চেপে ধরে আবার পাঁচ সেকেন্ড ব্যবহার করে তাকে নিস্তেজ করা হয়।

পুলিশ বলেছে, তাকে নিস্তেজ করার প্রায় পাঁচ মিনিট পর একটি অ্যাম্বুলেন্স আসে এবং অ্যান্ডারসনকে একটি স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পুলিশ জানায়, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে যাওয়ার সাড়ে চার ঘণ্টা পরে তিনি মারা যান।

লস এঞ্জেলেস পুলিশ বিভাগ(এলএপিডি) একটি টক্সিকোলজি পরীক্ষার রিপোর্ট এ অ্যান্ডারসনের রক্তে গাঁজা এবং কোকেনের উপস্থিতি পাওয়া পেয়েছে। লস এঞ্জেলেস কাউন্টি করোনার অফিস একটি পৃথক প্রতিবেদন প্রস্তুত করবে।

ফুটেজটি এলএপিডি-র ওপর চাপ বাড়াচ্ছে। কারণ, গত এক সপ্তাহে পুলিশের গুলিতে তিন কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যু হয়েছে।

টেকার স্মিথ(৪৫) ও অস্কার সানচেজ(৩৫) দুজনেই জানুয়ারির শুরুতে কর্মকর্তাদের গুলিতে নিহত হন।

লস অ্যাঞ্জেলেসের মেয়র কারেন বাস এই ঘটনাকে ‘গভীর বিরক্তিকর’ বলে অভিহিত করেছেন। পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে যে তারা এই তিনজনের মৃত্যুর তদন্ত করছে।

অ্যান্ডারসন ওয়াশিংটন ডিসি এলাকায় থাকতেন এবং লস অ্যাঞ্জেলেস ঘুরছিলেন। তার মৃত্যুতে কর্মীরা পুলিশ সংস্কারের জন্য নতুন করে আহ্বান জানিয়েছে। যাদের মধ্যে কেউ কেউ বিশ্বাস করে যে বন্দুক বহনকারী পুলিশকে ট্র্যাফিক দুর্ঘটনায় মোতায়েন করা উচিত নয়।

ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারের সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং অ্যান্ডারসনের কাজিন প্যাট্রিস কুলার্স গার্ডিয়ানকে বলেছেন, ‘আমার চাচাতো ভাই সাহায্য চেয়েছিলেন এবং সে তা পায়নি। আমার চাচাতো ভাই তার জীবনের জন্য ভয় পেয়েছিলেন। তিনি গত ১০ বছর ধরে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যাকে চ্যালেঞ্জ করে একটি চলমান আন্দোলন দেখেছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘তিনি জানতেন কী ঝুঁকিতে রয়েছেন এবং তিনি নিজেকে রক্ষা করার চেষ্টা করছেন। কেউ তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসেনি।’

মিসেস কুলার্স এবং অন্যরা এলএপিডি পুলিশ প্রধানের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন।

মুর বলেছেন, তিনি জনস্বার্থের কারণে অ্যান্ডারসনের ভিডিও ফুটেজ প্রকাশের কাজ ত্বরান্বিত করেছেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে সাধারণত ৪৫ দিন পর্যন্ত সময় লাগে। সূত্র: ইউএনবি।