শিশু হত্যা মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১০:৩৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৪, ২০২২

অনলাইন ডেস্ক ; জয়পুরহাটে শিশু হত্যা মামলায় চার জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

সোমবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. নুরুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার সূর্যবান গ্রামের মৃত মোবারক মণ্ডলের ছেলে বাবলু, একই এলাকার মৃত ইংরাজ মণ্ডলের ছেলে আমিনুল ইসলাম, মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে আব্দুল হামিদ ও ফিদা মিয়ার ছেলে কাজল হোসেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ক্ষেতলাল উপজেলার সূর্যবান গ্রামের ওবায়দুল রহমান ২০০৮ সালের ০৩ মে সকালে রাজমিস্ত্রির কাজের উদ্দেশ্যে কালাই উপজেলার করিমপুরে যান এবং তার স্ত্রী শিরিনা আক্তার ঝিয়ের কাজে ক্ষেতলালের একটি অফিসে যান। বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় প্রতিদিনের মতো ওবায়দুল রহমান তার শ্বাশুড়ির কাছে ছেলে তানভীর (৮) ও মেয়ে হাবিবাকে (১০) রেখে যান। ওই দিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওবায়দুল ও তার স্ত্রী কাজ শেষে বাড়িতে ফিরে দেখেন, তাদের ছেলে তানভীর বাড়িতে নেই। সে সময় চারদিকে খোঁজ করেও শিশুটির সন্ধান পাননি। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ওবায়দুল তার বাড়ির পশ্চিম পাশের একটি পুকুরে তানভীরের মরদেহ দেখতে পান।

ওই দিন রাতে ওবায়দুল বাদি হয়ে ক্ষেতলাল থানায় পাঁচ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) সিদ্দিকুর রহমান ২০০৮ সালের ১২ অগাস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

আদালত থেকে জানা গেছে, ওবায়দুল রহমানের সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে তার প্রতিপক্ষের লোকজন শিশু তানভীরকে গলাটিপে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেয়।

জয়পুরহাট কোর্টের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল বলেন, আদালতে নয় জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক সোমবার এ রায় দেন।