‘উন্নত জাতি বিনির্মাণে নিজস্ব মূল্যবোধের জাগরণ ঘটাতে হবে’

প্রকাশিত: ১১:৩০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০২২

অনলাইন ডেস্ক : উন্নত, দক্ষ, যোগ্য, মানবিক নাগরিক তৈরিতে বাংলাদেশের নিজস্ব সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের জাগরণ ঘটাতে হবে বলে মনে করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান।
সোমবার বরিশাল ব্রজমোহন কলেজে কলেজ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (সিইডিপি) আয়োজিত ‘ওয়ার্কশপ অন ন্যাশনাল স্ট্র্যাটেজিক প্লান ফর হায়ার এডুকেশন কলেজেস ইন বাংলাদেশ: ২০২৩-২০৩১’ শীর্ষক রিজিওনাল ডিসিমিনেশন ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন ভিসি।

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকটি জাতি ও দেশ গঠনের সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য রয়েছে। সেই লক্ষ্য এই নয় যে, ধনবান রাষ্ট্র হওয়া। বরং একটি মানবিক, কল্যাণকর, প্রগতিশীল, গণতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ সমাজ সৃষ্টিই হচ্ছে মূল্য লক্ষ্য। এটিই আমাদের আকাঙ্ক্ষা। আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যে শোষিতের গণতন্ত্রের কথা বলেছেন, সেটি যদি আমাদের আকাক্সক্ষার জায়গা হয়, তাহলে ধনবান রাষ্ট্র নয়, একটা জ্ঞানসমৃদ্ধ সমাজ তৈরি করা ছিল মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকার।’

নিজস্ব শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি, জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার বিকল্প নেই উল্লেখ করে ড. মশিউর রহমান বলেন, ‘আমাদের প্রাচ্যের যে শক্তি রয়েছে সেটিকে যে পাশ্চাত্যের অনুকরণে হতে হবে তা নয়। আমাদের নিজস্ব শক্তি আছে। আমাদের জ্ঞান চর্চার ইতিহাস আছে। আমি মনে করি বাংলাদেশকে যদি নিজ পায়ে দাঁড়াতে হয়, তাহলে আমাদের সংস্কৃতি চর্চার ঐতিহ্য, জ্ঞানচর্চা সেগুলোকে ধারণ করতে হবে। ইউরোপ যেমন রেঁনেসার মাধ্যমে জেগে উঠেছে। আমাদের সমাজে যদি জাগরণ তৈরি করতে হয়, আমূল পরিবর্তন নিশ্চিত করতে হয়, তাহলে নিজস্ব শক্তিমত্বার মধ্যদিয়ে জাগরণ নিশ্চিত করতে হবে। সেটিই প্রয়োজন। তাহলেই আমাদের একটা বুনিয়াদ তৈরি হবে। সেই বুনিয়াদের উপরই বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা দাঁড়াবে। শিক্ষকরা যেমন মেধা মননের চর্চা করবে, তেমনি যুগোপযোগী শিক্ষা নিশ্চিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।’ বাস্তবমুখী স্ট্র্যাটেজিক পরিকল্পনা গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে ভিসি বলেন, ‘এমন পরিকল্পনা গ্রহণ করা যাবে না যেটা বাস্তবায়নযোগ্য নয়। গরিব মানুষের অর্থায়নে আমাদের যে উন্নয়নমূলক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে, সেগুলোর সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।’

সিইডিপি প্রকল্প পরিচালক ড. এ কে এম মুখলেছুর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বোর্ডের বরিশাল আঞ্চলিক কার্যালয়ের পরিচালক প্রফেসর মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, ব্রজমোহন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়াসহ ১৭ টি কলেজের অধ্যক্ষ-উপাধ্যক্ষবৃন্দ। ভিসি এর আগে সকালে বরিশাল হাতেম আলী কলেজে ‘ইন হাউজ অফিস ম্যানেজমেন্ট ও আইসিটি’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরির্দশন করেন। এসময় তাঁর সঙ্গে বরিশাল হাতেম আলী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মু. গোলাম মোস্তফা ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বরিশাল আঞ্চলিক কেন্দ্রের পরিচালক ড. অলক কুমার সাহা উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিদর্শনের পাশাপাশি ভিসি হাতেম আলী কলেজের বঙ্গবন্ধু কর্নার ও বি এড পরীক্ষার হল পরিদর্শন করেন।