হালুয়াঘাটে প্রকাশ্যে ঘুরছে ধর্ষণ চেষ্টার আসামি, এক মাসেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

প্রকাশিত: ৫:০৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৮, ২০২১
হালুয়াঘাটে প্রকাশ্যে ঘুরছে ধর্ষণ চেষ্টার আসামি, এক মাসেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

জোটন চন্দ্র ঘোষ, হালুয়াঘাট : ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে পনের বছর বয়সের মাদ্রাসা পড়য়া এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করার প্রায় একমাস অতিবাহিত হলেও অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারেন নি হালুয়াঘাট থানা পুলিশ।

মাদ্রাসা ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে একই গ্রামের আবুল কাশেম চৌধুরী পুত্র মোশারফ চৌধুরীর নামে গত ২৩ নভেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(৪) (খ) ধারায় মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং-১৪। অসহায় হতদরিদ্র মাদ্রাসা ছাত্রীর পিতাকে মামলা প্রত্যাহার করতে হুমকি প্রদান করছেন আবুল কাশেম চৌধুরী ও তার পুত্র মোশারফ চৌধুরীসহ তাদের স্বজনরা।

গত শুক্রবার বিকালে বিলডোরা বাজারে সদ্য ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর দেলোয়ার হোসেন, স্থানীয় সাইফুল ইসলাম মীর, শফিকুল ইসলাম এর নেতৃত্বে মামলাটিকে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করতে “মিথ্যা মামলা” আখ্যা দিয়ে মামলাটি প্রত্যাহার করতে একটি মানববন্ধন করেন। এ ঘটনার পর থেকে মামলার বাদী অসহায় মাদ্রাসা ছাত্রীর পিতাসহ তাদের স্বজনরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, প্রকাশ্যে ঘুরছে মোশারফ। ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে একটি কুচক্রী মহল। মোশারফ চৌধুরীর বিরুদ্ধে এই রকম ঘটনা আরো রয়েছে, প্রভাবশালী ব্যক্তি হওয়ায় তার বিরোদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাননি। শিঘ্রই মোশারফকে গ্রেফতারের দাবী জানান।

মামলার বিবরণে প্রকাশ, উপজেলার বিলডোরা ইউনিয়নের বিলডোরা গ্রামের ১৫ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে গত ২২ নভেম্বর দিবাগত রাতে একই গ্রামের আবুল কাশেম চৌধুরী পুত্র মোশারফ চৌধুরী (২৬) বসত ঘরের জানালা দিয়ে ঘরে প্রবেশ করে ছাত্রীকে ইচ্ছার বিরোদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় ভুক্তভোগী ছাত্রীর ডাকচিৎকারে তার পিতা পাশের কক্ষ থেকে ছুটে এলে ধর্ষণের চেষ্টাকারী মোশারফ চৌধুরী দরজা খুলে পালিয়ে যায় বলে মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে মোশারফ চৌধুরীসহ তাদের নিকট আতœীয়-স্বজনদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পরিবারের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরির্দশক মোঃ নাজিম উদ্দিন এ প্রতিবেদককে মুঠোফোনে বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার আসামি মোশরফ চৌধুরীকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

এ বিষয়ে হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহীনুজ্জামান খাঁন এ প্রতিবেদককে বলেন, প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় গত ২৩ নভেম্বর হালুয়াঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু করা হয়। যাহার মামলা নং-১৪। মামলাটিকে ভিন্ন খাতে প্রভাবিত করতে “মিথ্যা মামলা” আখ্যা দিয়ে মামলাটি প্রত্যাহার করতে একটি মানববন্ধন করেন? এ বিষয়টি জানানেই। মোশরফ চৌধুরীকে গ্রেফতারের জন্য থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। মামলা প্রত্যাহার করতে হুমকি প্রদান করছেন এমন অভিযোগের সত্যতা পেলে তাদের বিরোদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।