হালুয়াঘাটে ভূমিসহ ঘর পেলেন ১৪০ গৃহহীন পরিবার

প্রকাশিত: ৩:৩৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০২১
হালুয়াঘাটে ভূমিসহ ঘর পেলেন ১৪০ গৃহহীন পরিবার

জোটন চন্দ্র ঘোষ, হালুয়াঘাট : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে ১৪০জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পেয়েছেন ভূমিসহ ঘর।
“আশ্রয়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার” এই শ্লোগানে দরিদ্রদের জন্য অগ্রাধিকারমূলক প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রকল্পের আওতায় ‘ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য ঘর নির্মাণ প্রকল্প- ১ ও ২’ এর আওতায় এ ঘর বিতরণ করা হয়েছে।

সারাদেশের ন্যায় ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট উপজেলায় গত বছর ১ম পর্যায়ে ১০০টি ও চলতি বছরে ২য় পর্যায়ে ৪০টি ঘর উপকারভোগীদের মাঝে গত ২০ জুন বিতরণ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন ময়মনসিংহ-১ আসনের জননন্দিত, মাটি ও জনমানুষের প্রিয় নেতা মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য জুয়েল আরেং।

জানা যায়, চলতি বছরে হালুয়াঘাট উপজেলার জুগলী ইউনিয়নের আশ্রয়ণ কেন্দ্রে ৬টি, কৈচাপুর ইউনিয়নে ৪টি, হালুয়াঘাট সদর ইউনিয়নে ৮টি, গাজিরভিটা ইউনিয়নে ১০টি, বিলডোরা ইউনিয়নে ২টি, শাকুয়াই ইউনিয়নে ২টি, নড়াইল ইউনিয়নে ৩টি এবং ধারা ইউনিয়নে ১টি ঘর নির্মিত হয়।

দৈনিক সময় সংবাদ

হালুয়াঘাটে ভূমিসহ ঘর পেলেন ১৪০ গৃহহীন পরিবার


২য় ধাপে হালুয়াঘাটে ৪০জন ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মধ্যে ৩০টি পরিবারকে ঘর প্রদান করা হয়। বাকী ১০টি ঘরের কাজ চলমান রয়েছে, শিঘ্রই নির্মান কাজ শেষ করে উপকারভোগীদের মধ্যে বিতরণ সম্পন্ন করা হবে। ২ শতাংশ ভুমিসহ প্রতিটি পাকা ঘরে রয়েছে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাঘর, একটি শৌচাগারসহ বিদ্যুৎ ও বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা।

সরেজমিনে দেখা যায়, সম্প্রতি অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে আকস্মিক বন্যায় উপজেলার পৌরশহরসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন প্লাবিত হলেও ক্ষতিগ্রস্থ হয়নি আশ্রয়ন প্রকল্পের কোন ঘর। উপকারভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তাদের ভুমির কাগজসহ ঘর পেতে কোন টাকা পয়সার প্রয়োজন হয়নি। সকল কিছু বিনামূল্যে পেয়ে তারা মহাখুশি।

এ বিষয়ে আকনপাড়া আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর বরাদ্দ পাওয়া উপকারভোগী রহিমা খাতুন, জ্যোতি আক্তার বিথী, রেনু, ফাতেমা খাতুন, জান্নাত আরা খাতুন, রতন মানিক জানান, ২শতাংশ ভুমিসহ প্রতিটি পাকা ঘরে রয়েছে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাঘর, একটি শৌচাগার, বিদ্যুৎ ও বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থাস। টাকা পয়সার লেনদেন ছাড়া সরকার তাদেরকে ঘর প্রদান করায় সরকারের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। স্ত্রী,সন্তানসহ পরিজন নিয়ে সুখে স্বাচ্ছন্দ্যে জীবন যাপন করার ব্যবস্থা করায় মহান রাব্বুল আলামিনের নিকট মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দুহাত তোলে দোয়া করেন। তারা আরো বলেন, মানসন্মত ভাবে সরকারি পরিপত্র অনুযায়ী তাদের ঘরগুলি নির্মান করা হয়। সার্বক্ষণি ময়মনসিংহ জেলা প্রসাশক মোঃ এনামুল হক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম তাদের খোজ খবর নিচ্ছেন। সরকারের পাশাপাশি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, সরকারি পরিপত্র অনুযায়ী মানসন্মত ভাবে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ১ম পর্যায়ে ১০০টি ও ২য় পর্যায়ে ৪০টি পাকা ঘর এর মধ্যে ৩০টি ঘর প্রদান করা হয়েছে। বাকী ১০টি ঘরের নির্মান কাজ প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। শিঘ্রই উপকারভোগীদের মাঝে প্রদান করা হবে। বরাদ্দ পাওয়া গৃহহীন পরিবারগণ স্ত্রী,সন্তান নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে বসবাস করছেন। তিনি আশ্রয়ণ প্রকল্পের সকল সুবিধাভোগীদের বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোজ খবর রাখছেন।