মহামারি নির্মূলে ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে হবে: ডব্লিউএইচও

প্রকাশিত: ১০:৩৬ অপরাহ্ণ, মে ২৯, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনা মহামারি নির্মূল করতে বিশ্বের অন্তত ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকার আওতায় আনতে হবে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। শুক্রবার ডব্লিউএইচও’র ইউরোপীয় শাখার পরিচালক হ্যান্স ক্লাগ ফ্রান্সের বার্তাসংস্থা এএফপিকে এ কথা বলেন।

হ্যান্স ক্লাগ এএফপিকে বলেন, বিশ্বজুড়েই মানুষের মধ্যে এক প্রকার গা ছাড়া মনোভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আমাদের মনে রাখতে হবে, করোনা মহামারি শেষ হয়ে গেছে, বা যাচ্ছে এমন চিন্তা-ভাবনা করার কোনো সুযোগ এখন পর্যন্ত নেই। বিশ্বের অন্তত ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকার আওতায় আনার আগ পর্যন্ত এই মহামারি নির্মূল হবে না।

এক বছরের বেশি সময় সংক্রমণের ফলে কয়েকবার অভিযোজন (মিউটেশন) ঘটেছে ভাইরাসটির। এর ফলে নতুন যেসব ভ্যারিয়েন্টের উদ্ভব ঘটছে, তা আগেরগুলোর চেয়ে উচ্চ সংক্রমণশীল ও অনেক প্রাণঘাতী হচ্ছে। এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে ক্লাগ বলেন, এই ব্যাপারটি সত্যিই খুব উদ্বেগের, কারণ আমরা ইতোমধ্যে দেখেছি প্রচলিত সার্স-কোভ-২ ভাইরাসটির তুলনায় এর ব্রিটিশ ভ্যারিয়েন্ট বি.১১৭ এর সংক্রমণ ক্ষমতা বেশি। আবার, এখন দেখা যাচ্ছে ভাইরাসটির ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বি.১৬১৭ এর ক্ষয়ক্ষতির ক্ষমতা ব্রিটিশ ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে বেশি।

ভাইরাসটির ক্রমাগত এই অভিযোজন বৈশ্বিক মহামারি পরিস্থিতি আরো তীব্র করে তুলছে জানিয়ে টিকাদান কর্মসূচি আরো গতিশীল ও বিস্তৃত করাই এর থেকে পরিত্রাণের উপায় বলে মনে করেন তিনি। হ্যান্স ক্লাগ বলেন, সময় দ্রুত বয়ে যাচ্ছে। এই মহমারিকে লাগাম টানতে হলে এই মুহূর্তে যে দিকে সবচেয়ে বেশি মনযোগ দিতে হবে, তা হলো গতি।

ডব্লিউিএইচওর ইউরোপীয় শাখার পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ইউরোপের মোট ৫৩ টি দেশ এবং এলাকার (টেরিটরি) মোট জনসংখ্যার মাত্র ২৬ শতাংশকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া গেছে। অন্যদিকে ফ্রান্সের বার্তাসংস্থা এএফপির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বসবাসকারী মোট জনসংখ্যার মাত্র ৩৬ দশমিক ৬ শতাংশ মানুষ এখন পর্যন্ত টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। টিকার দুই ডোজ নেওয়া সম্পূর্ণ করেছেন ১৬ দশমিক ৯ শতাংশ মানুষ।