মুর্মূষু রোগীর জীবন বাঁচাতে বরিামপুরে ইউএনওর রক্ত দান

প্রকাশিত: ৫:২০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০

জাকিরুল ইসলাম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:‘মানুষ মানুষের জন্যে, জীবন জীবনের জন্যে’ কিংবদন্তি শিল্পী ভূপেন হাজারিকার গানের এই কথাগুলো যে কত সত্যি, তা আবার প্রমাণ করলেন দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার।

গতকাল দুপুরে উপজেলার একটি বেসরকারি ক্লিনিকে তিনি জরায়ু টিউমারে আক্রান্ত শাহারা বানুকে অপারেশন এর জন্য এক ব্যাগ রক্ত দিয়েছেন।রক্ত সংগ্রহের কাজে সহযোগিতা করেন বিরামপুর ব্লাড ব্যাংক নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী রক্তদানকারী ভার্চুয়াল সংগঠন।

রোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শাহারা বানু (৪০) পৌর শহরের শাল বাগান মহল্লার বাবলার স্ত্রী। কয়েকবছর যাবৎ শাহারা বানুর পেটে ব্যাথা, বমি ও অনান্য সমস্যা হতে থাকে স্থানীয় চিকিৎসকদের চিকিৎসায় সাময়িক ভালো থাকলেও গত বৃহস্পতিবার তার অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় পৌর শহরের রায়হান ক্লিনিকে ভর্তি করে। চিকিৎসক জরায়ুর অপারেশন করতে হবে বলে জানান রোগীর পরিবারকে এবং দুই ব্যাগ বি পজিটিভ রক্ত সংগ্রহ করতে বলেন।

সংগঠনটির সিনিয়র এডমিন আরমান আলী জানান, অপারেশন এর জন্য একজন মুমূর্ষু রোগীর রক্তের প্রয়োজন এই শিরোনামে বিরামপুর ব্লাড ব্যাংক নামক আমাদের ফেসবুক পেজে পোস্ট করে রোগীর আত্মীয় রাশেদুল ইসলাম। এরপর আমাদের সেচ্ছাসেবকরা রক্তের জন্য অনেকের সঙ্গে যোগাযোগ করি। কিন্তু রক্ত সংগ্রহ করা সম্ভব হচ্ছিল না। একপর্যায়ে বিষয়টি জানতে পারেন ইউএনও পরিমল কুমার সরকার স্যার। তার রক্তের গ্রুপও বি পজিটিভ। এরপর এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও তিনি রক্তদানে আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং দুপুরে তিনি ক্লিনিকে এসে এক ব্যাগ রক্ত দান করেন। এছাড়াও তমাল নামক আরো একজন এক ব্যাগ রক্ত দেন।

শাহারা বানুর মা আনোয়ারা বেগম মুঠোফোনে বলেন, ‘ইউএনও স্যার আমার মেয়েকে রক্ত দিয়েছেন। এ জন্য আমরা খুব খুশি ও তাঁর কাছে গভীরভাবে কৃতজ্ঞ। আল্লাহ তাঁর মঙ্গল করুন।’

ইউএনও পরিমল কুমার সরকার বলেন, বিরামপুর ব্লাড ব্যাংকের আহ্বানে সাড়া দিয়ে একজন রোগীর অপারেশনের জন্য এক ব্যাগ রক্ত দান করলাম। রোগীর জীবন বাঁচাতে রক্ত দিতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। এটি আমার জীবনে ৯ম বারের মত রক্ত দান। মূলত রক্তদানে সক্ষম ব্যক্তিদের উৎসাহিত করার জন্য আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

মো. জাকিরুল ইসলাম জাকির
বিরামপুর, দিনাজপুর।
মোবাইল-০১৭১৮.৮৪৩২৪৪
তারিখ-২৮.১১.২০২০।