মৃত্যুকূপ স্পেনে বাড়িতে বাড়িতে মিলছে বৃদ্ধদের লাশ

প্রকাশিত: ৬:৩৭ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতী নতুন করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত স্পেনে মর্মান্তিক কিছু ঘটনা এখন সামনে আসছে। দেশটির সেনাবাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন এলাকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। তারা অনেক পরিত্যক্ত বাড়িতে বৃদ্ধদের বিছানায় কাতরাতে দেখছেন অথবা বিছানায় পড়ে থাকতে দেখছেন মরদেহ।

মঙ্গলবার দেশটির প্রতিরক্ষাবাহিনীর বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। স্পেনের প্রসিকিউটর পরিত্যক্ত বাড়িতে মরদেহ পাওয়ার ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ভয়াবহ করোনা প্রকোপে পরা স্পেনের বৃদ্ধাশ্রমগুলো পরিষ্কার করার কাজে সহায়তা করছে সেনাবাহিনী।

সোমবার স্পেনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত অন্তত ৪৬২ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট প্রাণহানির সংখ্যা ২ হাজার ৬৯৬ জনে পৌঁছেছে। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্গারিটা রোবলস স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল টেলিসিনোকে বলেছেন, বয়স্কদের বাড়িতে বাধ্যতামূলকভাবে রাখার ব্যাপারে কঠোর এবং অনমনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।

তিনি বলেন, অবসরনিবাসগুলো পরিদর্শনে গিয়ে সেনাবাহিনীর সদস্যরা কিছু নিবাস একেবারে পরিত্যক্ত পেয়েছেন। এমনকি অনেক নিবাসে বিছানায় বৃদ্ধদের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেছেন।

স্পেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর কিছু কিছু বৃদ্ধনিবাসের কর্মীরা সেখানকার বৃদ্ধদের রেখে চলে যান। দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী, সৎকার সার্ভিসের কর্মীরা এগিয়ে না আসা পর্যন্ত মৃতদের মরদেহ কোল্ড স্টোরেজে রাখা হবে।

স্পেনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্যালভাদর ইলা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, সরকারের অগ্রাধিকারের শীর্ষে আছে অবসরকালীন বৃদ্ধনিবাসগুলো। এসব কেন্দ্রে আমরা সর্বোচ্চ নজরদারি করবো। করোনায় পরিস্থিতি দেশটিতে এমন ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে যে, লাশ পুড়িয়ে ফেলতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে। মাদ্রিদ পৌর সৎকার সার্ভিস বলছে, মঙ্গলবার থেকে তারা আর কোভিড-১৯ রোগীদের মরদেহ পোড়াবেন না। কারণ হিসেবে সুরক্ষা সামগ্রীর ঘাটতির কথা জানিয়েছেন তারা।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালিতে করোনার ভয়াবহ প্রকোপ শুরু হয়েছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ গেছে ৬০২ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৬ হাজার ৭৭ জনে পৌঁছেছে। এরপরই সর্বোচ্চ প্রাণহানি ঘটেছে স্পেনে ২ হাজার ৬৯৬ জন এবং আক্রান্ত গহয়েছেন ৩৯ হাজার ৬৭৩ এবং সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৭৯৪ জন।

বিশ্বের ১৯৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে প্রাণঘাতী করোনায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৯১ হাজার ৯৪৭ এবং মারা গেছেন ১৭ হাজার ১৩৮ জন। এছাড়া এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ২ হাজার ৮৪৩ জন।