| | বুধবার, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

‘রাজাকারের সন্তান’ বলে গালি, বিক্ষোভে ববি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিতঃ ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ২৮, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার : শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকারের সন্তান’ বলে গালি দেওয়ার প্রতিবাদসহ বিভিন্ন দাবিতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) ছাত্র-ছাত্রীরা বিক্ষোভ করছেন।

বুধবার সকালে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বিক্ষোভ শুরু করেন ববি শিক্ষার্থীরা। স্লোগানে স্লোগানে ভিসিকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান তারা।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, ভিসি ইমামুল হক মঙ্গলবার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ক্যাম্পাসে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। কিন্ত ফুল দেওয়া ছাড়া আর কোনো অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের রাখা হয়নি। এর প্রতিবাদে দুপুরে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ শুরু করেন। শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মধ্যে দুপুরে এক অনুষ্ঠানে ভিসি আন্দোলনকারীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’বলে সম্বোধন করেন।

ভিসির ওই বক্তব্য বিকালে আন্দোলনে নতুন মাত্রা যোগ করে। সন্ধ্যায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা দাবি না মানা হলে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জনের আল্টিমেটাম দেয়। আজ সকাল থেকে তারা আবার বিক্ষোভ শুরু করেন।

বিক্ষোভে শিক্ষার্থীরা ভিসিকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়া, ছাত্র সংসদ চালু, পরীক্ষা বর্জন করলে ফের পরীক্ষা নেওয়ার জন্য কোনো জরিমানা না করা, এক মাসের মধ্যে শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড হস্তান্তর করা, বিশ্ববিদ্যালয় বাসের সংখ্যা বাড়ানো এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে ওভার ব্রিজ তৈরি করাসহ বিভিন্ন দাবি জানাচ্ছেন। এসব দাবি মানা না হলে আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুমকিও দেন তারা।

ববি ভিসি ইমামুল হক জানান, বছরজুড়েই শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা অনুষ্ঠানমালা রয়েছে। স্বাধীনতা দিবসেও তাদের আলাদা কর্মসূচি রয়েছে। তবে বিশেষ কিছু দিনেই ভাইস চ্যান্সেলরের পক্ষ থেকে শিক্ষক, কর্মকর্তা, বরিশালের বিশিষ্টজন এবং সাংবাদিকদের চা-চক্রের আমন্ত্রণ দেওয়া হয়ে থাকে।

তিনি বলেন, ‘এসব অনুষ্ঠানে ছাত্রদের কখনোই রাখা হয় না। হঠাৎই এ বছর শিক্ষার্থীরা এমন করছে।’

‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলা হয়েছে শিক্ষার্থীদের এমন অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আমি কীভাবে রাজাকারের বাচ্চা বলি? বিশ্ববিদ্যালয়ে তো মুক্তিযোদ্ধারও অনেক সন্তান রয়েছে। তারা (শিক্ষার্থী) আমার কথা ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ে তার মেয়াদ আর দুই মাস রয়েছে জানিয়ে ববি ভিসি বলেন, ‘আমাকে আবার যেন এখানে উপাচার্য নিয়োগ করা না হয়- সে জন্যই অস্থিতিশীল পরিস্থিতি দেখানোর চেষ্টা চলছে।’

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares