| | রবিবার, ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী |

আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ

প্রকাশিতঃ ১২:৩০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ ওরফে আহসান সাইয়েদের বিরুদ্ধে এক শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অভিযোগে শনিবার রাতে চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁও আবাসিকে তার বাসা অবরোধ করে স্থানীয়রা। পরে সপরিবারে এলাকা ছাড়ার শর্তে উদ্ধার পান তিনি।

স্থানীয়রা জানান, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ ঢাকায় থাকলেও তার পরিবার নগরের চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার ‘এ’ব্লকের ২ নম্বর সড়কে বসবাস করেন। আহসান উল্লাহ সাপ্তাহিক ছুটিসহ অবসরে চট্টগ্রামের বাসায় থাকেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গত শনিবার সন্ধ্যায় তিনি (আহসান উল্লাহ) পার্শ্ববর্তী রাস্তা থেকে এক শিশুকে ফুঁসলিয়ে বাড়ির গ্যারেজে নিয়ে বলাৎকারের চেষ্টা করেন। এ সময় বিষয়টি টের পেয়ে এলাকাবাসী সন্ধ্যা থেকে রাত ২ টা পর্যন্ত তার বাসা অবরোধ করে রাখে। পরে এলাকাবাসীর কাছে ওই শিশুকে বলাৎকারের চেষ্টার কথা স্বীকার এবং সপরিবারে এলাকা ছেড়ে চলে যেতে রাজি হন তিনি।

জাহেদুল ইসলাম নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা জাগো নিউজকে বলেন, ‘শুধু এবারই নয়, আগেও এলাকার কয়েক শিশু অধ্যাপক আহসান উল্লাহর হাতে বলাৎকারের শিকার হয়েছে। তিনি বিভিন্ন সময় শিশুদের ফুঁসলিয়ে তাদের সঙ্গে কূরুচিপর্ণ আচরণ করতেন। বিষয়টি জেনেও এলাকাবাসী হাতেনাতে ধরার অপেক্ষা করছিলেন। শনিবারের ঘটনার পর তিনি নিজেই বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এরপর সপরিবারে এলাকা ছাড়ার শর্তে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।’

এ বিষয়ে জানতে অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহর মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

চান্দগাঁও থানার ওসি মো. আবুল বাশার জাগো নিউজকে বলেন, ‘এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে সেখানে ফোর্স পাঠিয়েছিলাম। কিন্তু তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি।’

এদিকে এলাকাবাসীর দাবি উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পুলিশের গাড়িতে করেই অধ্যাপক আহসান উল্লাহকে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে দেশের প্রথম সরকারি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ এর উপাচার্য নিযুক্ত হন। এর আগে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares