| | রবিবার, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী |

চিতলমারীতে দিশা আত্মহত্যার প্ররোচক মাদক সেবী মিঠুনের গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশিতঃ ৭:৪৯ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৮

বিভাষ দাস, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : বাগেরহাটের চিতলমারীতে কলেজছাত্রী দিশা মজুমদারের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারী চিহ্নিত মাদকসেবী মিঠুন মজুমদারকে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবীতে শনিবার বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা হয়েছে। চিতলমারীর খাসেরহাটস্থ কালিদাস বড়াল স্মৃতি ডিগ্রী কলেজের পক্ষ হতে এ বিক্ষোভ ও পথসভার আয়োজন করা হয়। পথসভা হতে আগামী সোমবার প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানের ঘোষনা দেয়া হয়।

বক্তারা আরো দাবী জানান, ইন্টারনেট-মোবাইলের মাধ্যমে আপত্তিকর ছবি-ভিডিও প্রচারের মাধ্যমে হয়রানি ও প্রতারণার সাথে জড়িত চক্রের বিরুদ্ধে পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে হবে। এছাড়া দিশা আত্মহত্যার প্ররোচক মিঠুন সহ চিতলমারীর মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে ভবিষ্যতে আরো কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চিতলমারী উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের দড়িউমাজুড়ি গ্রামের জগদিশ মজুমদারের ছেলে চিহ্নিত মাদকসেবী মিঠুন মজুমদার (২৬) কিছুদিন ধরে দিশাকে উত্যক্ত করছিল। এক পর্যায়ে মিঠুন দিশার সাথে বিবস্ত্র ছবি মোবাইলে প্রচার করে দেয়। সমাজে বদনাম রটে দিশার, সে কলেজে যাওয়া বন্ধ করে। বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বাড়ির দক্ষিণ-পূর্ব দিকের বাগানে গাবগাছে গলায় ওড়না দিয়ে ঝোলানো অবস্থায় দিশার মৃতদেহ পাওয়া যায়। কৃষক সুকুমার মজুমদারের চার সন্তানের মধ্যে দিশা সবার বড়।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে কলেজ হতে বিক্ষোভ মিছিলটি বেরিয়ে খাসেরহাট বাজার, চরবানিয়ারী ও বাহিরদশহল মাধ্যমিক বিদ্যালয় সড়ক প্রদক্ষিণ করে সন্তোষপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরে এসে শেষ হয়। এখানে পথসভায় সভাপিতত্ব করেন কালিদাস বড়াল স্মৃতি ডিগ্রী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অশোক কুমার বড়াল। বক্তব্য রাখেন কলেজছাত্রী তিশা ঘরামী, কলেজ অধ্যক্ষ স্বপন কুমার রায় প্রমূখ।

চিতলমারী থানার উপপরিদর্শক উজ্জ্বল কুমার বিশ্বাস বলেন, ‘তাৎক্ষনিকভাবে জিডি করে বৃহস্পতিবার দিশার লাশ ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। দিশার পিতা বাদী হয়ে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অপরাধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (ক) ধারায় মিঠুনের নামে ২৮ সেপ্টেম্বর মামলা করেছেন। অপরাধ প্রমানিত হলে অপরাধীর পাঁচ থেকে ১০ বছরের কারাদন্ডের বিধান রয়েছে।’

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares