| | বুধবার, ২৮শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী |

দিনদুপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিতঃ ৫:৪৫ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

অনলাই ডেস্ক :নরসিংদীতে দিনদুপুরে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে রুহুল আমিন (২২) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার সঙ্গীতা জবা মিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।নিহত রুহুল আমিন সদর উপজেলার সঙ্গীতা এলাকার বিল্লাল মিয়ার ছেলে। তিনি রঙের ব্যবসা করতেন।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সঙ্গীতা এলাকায় ডিস ব্যবসা করে আসছিল স্থানীয় সারোয়ার হোসেনের ছেলে তানজিল ও ছোটন। সম্প্রতি রুহুল আমিন তার নিজ এলাকায় ডিস ব্যবসা করতে চেয়েছিলেন। সেই অনুযায়ী রুহুল চার শতাধিক ডিস লাইন দেয়ার কথা জানিয়েছিল তানজিলকে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এরই জের ধরে বুধবার বেলা ১১টার দিকে তানজিল হৃদয়, ছোটন ও মনির রুহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে জবা টেক্সটাইল মিল সংলগ্ন একটি মাঠে নিয়ে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা রুহুলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। তার আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের গ্রাম ধ্বংস করে সরকারি ভবন বানাচ্ছে

নিহতের ভাবি সাথী বলেন, রুহুল বাড়িতেই ছিল। তারা তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। একটু পর তার মৃত্যুর খবর পাই।

নিহতের ভাই শরিফুল বলেন, ছোটনের সঙ্গে রুহুলের পার্টনারে ব্যবসা ছিল। কিন্তু ছোটন রুহুলকে কোনো লাভ দিতো না। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে তানজিল হৃদয়, ছোটন ও মনির রুহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করেছে। আমি খুনিদের বিচার চাই।

নরসিংদী সদর মডেল থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) সালাউদ্দিন বলেন, রুহুল ডিস ব্যবসায় পার্টনার হতে চেয়েছিলেন। এনিয়ে তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব তৈরি হয়। এরই জেরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares