| | সোমবার, ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

আমাজন রক্ষায় সাত দেশের বিপর্যয় মোকাবিলা নেটওয়ার্ক, পুনঃবনায়ন

প্রকাশিতঃ ৯:০৬ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৭, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বের সর্ববৃহৎ চিরহরিৎ বন ও পৃথিবীর ফুসফুস হিসেবে পরিচিত আমাজন বন রক্ষায় ব্যবস্থা নিতে দক্ষিণ আমেরিকার সাতটি দেশ চুক্তি সই করেছে। বিপুল এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বৈশ্বিক উদ্বেগের প্রেক্ষিতে আমাজন নদীর অববাহিকাকে সুরক্ষিত করতেই এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে দেশগুলো।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে এই খবর জানিয়ে বলা হচ্ছে, চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো হলো বলিভিয়া, ব্রাজিল, কলোম্বিয়া, ইকুয়েডর, গায়ানা, পেরু ও সুরিনাম। চুক্তি অনুযায়ী, তারা বিপর্যয় মোকাবিলা করতে একটি নেটওয়ার্ক তৈরি এবং স্যাটেলাইট মনিটরিং করবে।

কলোম্বিয়ায় অনুষ্ঠিত ওই চুক্তি সই সম্মেলনে দেশগুলো আমাজনের অববাহিকায় অরণ্যায়ন তথা পুনঃবনায়নের ব্যাপারেও একমত হয়েছে। প্রসঙ্গত চলতি বছর চিরহরিৎ বন আমাজনে রেকর্ডসংখ্যক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বছরের শুরু থেকে আগস্ট পর্যন্ত আমাজনে আগুন লাগার ঘটনা ছিল ৮০ হাজারের বেশি।

কলোম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান ডুকে বলেছেন, ‘লাটিসিয়ায় অনুষ্ঠিত এই বৈঠক বিশ্বের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ আমাজন নিয়ে প্রেসিডেন্টদের মধ্যে সমন্বয় সাধনের কাজটি করবে। অপরদিকে পেরুর প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারা বলেছেন, ‘শুধু সবার শুভ ইচ্ছা এখন আর যথেষ্ট নয়।’

সম্মেলনে সাত দেশের প্রেসিডেন্ট শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রগতি এবং আদিবাসী সম্প্রদায়ের ভূমিকা বৃদ্ধিতে জোড়ালো পদক্ষেপ নেয়ার ব্যাপারেও সম্মত হয়েছেন। বেশিরভাগ দেশের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ভাইস প্রেসিডেন্ট ও গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরাও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

তবে আমাজনের ৬০ শতাংশ অঞ্চল থাকা ব্রাজিলের কট্টরপন্থী প্রেসিডেন্ট জেয়ার বোলসোনারো সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন না। তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে অংশ নেন। আমাজন রক্ষায় ভূমিকা রাখতে না পারার দায়ে তার সমালোচনা করছে বিশ্ববাসী।

হিন্দু রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জাতিসংঘের সহযোগিতা চায় মিয়ানমার

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares