| | বৃহস্পতিবার, ৭ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী |

হালুয়াঘাটে এএসপি অফিসে ল্যাপটপ ও নগদ টাকা চুরির অভিযোগে আটক-১

প্রকাশিতঃ ৭:৫৯ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৩, ২০১৯

এম.এ খালেক ,হালুয়াঘাট :
ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট সার্কেলের এএসপি আলমগীর পিপিএম এর অফিসের পুলিশ সদস্য মাহিদুল রহমানের নগদ ৫২ হাজার ৫শত টাকা ও ল্যাপটপ চুরির অভিযোগে এক চোরকে আটক করেছেন থানা পুলিশ। পাশাপাশি পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগিহতায় চুরি যাওয়া ল্যাবটপটি উদ্ধার করা হলেও নগদ ৫২ হাজার ৫শত টাকা উদ্ধার করা যায়নি। গত ২ আগষ্ট সন্ধার পর এএসপি আলমগীর পিপিএম এরঅফিসে চুরির ঘটনাটি ঘটে।

নাটোর সদর হাসপাতালে ১০ জন রোগী ভর্তি

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাত আনুমানিক ৯টার দিকে উপজেলার স্বদেশীইউনিয়নের মাছাইল গ্রামের সাইদুল ইসলামের পুত্র পেশাদার চোর মনির হোসেন (২২) সুপারিগাছ বেয়ে এএসপি অফিসে উঠে জানালা দিয়ে কৌশলে একটি ল্যাপটপ ও নগদ টাকা নিয়েযাওয়ার সময় পুলিশ সদস্য মাহিদুল দেখে ফেলে। এ সময় চোর মনির মিয়া দৌরে পালোনোর চেষ্টাকরে দর্শা নদীতে ঝাপদিয়ে ঝুপের ভিতর পালিয়ে থাকে।

দুই বাসের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০ জন হয়েছে

পরে থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা পানিতে নেমে কৌশলে চোর মনির মিয়া কে আটক করেন। আটক মনির মিয়াকে সাথে নিয়ে চোরি যাওয়া ল্যাপটপটি উদ্ধার করেন হালুয়াঘাট সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আলমগীরপিপিএম। এ সময় চোরি যাওয়া নগদ অর্থ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, আটককৃত চোর মনির মিয়ার নামে চোরির অভিযোগে হালুয়াঘাট থানায় একাদিক মামলা রয়েছে।

শুনলামনা কিছু বুঝলামনা কিছু

চুরির অপরাধে তাকে বেশ কয়েক বার আটক করেন থানা পুলিশ। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। সার্কেল অফিসে চোরির ঘটনায় মামলা রুজু করেছেন। যাহার নং-৩। আটককৃত মনিরকে আদালেতে প্রেরণ করেছেন। আটককৃত চোর মনির হোসেন পাগলপাড়া গ্রামের সারোয়ার হোসেনের বাড়ির ভাড়াটিয়া বলে জানান।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares