| | সোমবার, ৮ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

পঞ্চগড়ে আত্মহত্যার প্ররোচকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিতঃ ৯:৫০ অপরাহ্ণ | জুলাই ১০, ২০১৯

এন এ রবিউল হাসান লিটন, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ে অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে মোঃ মাহাবুব আলম (২২) নামে এক সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আমলী আদালত-১, পঞ্চগড় এ মামলা দায়ের করেছে ছাত্রীর বাবা। আদালত বাদীর অভিযোগ এজহার হিসেবে গ্রহণ করে পঞ্চগড় সদর থানায় প্রেরণ করেছে।

মাহাবুব পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের গোবরা পাড়া এলাকার মোঃ গুলজার আলীর ছেলে। সে ময়মনসিংহ সেনা ক্যান্টনমেন্টে সৈনিক পদে কর্মরত বৃহস্পতিবার একই ইউনিয়নের হালুয়া পাড়া গ্রামের মোঃ ময়নুল ইসলাম বাদী হয়ে দঃ বিঃ আইনের ৩০৬ ধারা মতে এ মামলা করেন। মামলার পিটিশন নম্বর ২৯৭/১৯ মোকদ্দমা সূত্রে জানা যায়, গত ৩০ জুন (রোববার) সন্ধায় বাদী মোঃ ময়নুল ইসলামের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে মোছাঃ মুনিরা আক্তার (১৪) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মুনিরা একই এলাকার ডাবরভাঙ্গা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। মুনিরা আত্মহত্যার পূর্বে নিজ হাতে দুইটি চিরকুট লিখেছিল যেখানে মাহাবুবের নাম উল্লেখ রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৩ বছরের কর্মপরিকল্পনার চূড়ান্ত বাস্তবায়ন বিষয়ক কর্মশালা

এলাকাবাসী জানায়, আসামী মাহাবুবের সাথে বাদী ময়নুল ইসলামের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে মনিরা আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তারা প্রায় সময় গোপনে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরা-ফেরা করতো। চাকরি হলে বিয়ে করবে বলে মুনিরাকে আশ্বাস দিতো আসামী মাহাবুব। এর মধ্যে গত দেড় বছর আগে সেনাবাহিনীতে চাকরি হয় আসামীর। বাদী মোঃ ময়নুল ইসলাম বলেন, আসামী মাহাবুবের কাছে আমার মেয়ের আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও রয়েছে যা সে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়েছিল এজন্য আমার মেয়ে লোক লজ্জার ভয়ে, মানসিক বিপর্যস্ত হয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে। আমার মেয়ের মৃত্যুর জন্য কেবল মাহাবুবই দায়ী আমি তার উপযুক্ত বিচার চাই।

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু আককাস আহমদ বলেন, আদালতের আদেশ পেয়েছি মামলা রেকর্ড হয়েছে। আসামীকে আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares