| | মঙ্গলবার, ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২০শে জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

গৌরীপুর থানায় যোগদান করেছেন জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী পদকপ্রাপ্ত ওসি কামরুল

প্রকাশিতঃ ৮:৩৭ অপরাহ্ণ | জুন ২৬, ২০১৯

জোটন চন্দ্র ঘোষ : জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী পদকপ্রাপ্ত বাংলাদেশ পুলিশের গৌরবজ্জ্বল পুলিশ কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম। গতকাল ২৬ জুন বুধবার অপরাহ্নে ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার পুলিশ পরির্দশক (ওসি তদন্ত) গোলাম মাওলা এর নিকট থেকে দ্বায়িত্ব বুঝে নিয়ে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দ্বায়িত্বভার গ্রহন করেন।

জানা যায়, এ পুলিশ কর্মকর্তা সর্বপ্রথম ঢাকা জেলার দোহার থানায় সফলতার সাথে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দ্বায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীত্বে ২০১৬ সনের ৮ জুন ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানায় যোগদান করে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হিসেবে সাফল্যের দ্যুতি ছড়িয়ে ছিলেন। অল্প সময়ে একজন চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে ব্যক্তিগত জীবনে পেশাদার ন্যায়পরায়ণ ও মেধাবী পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। মানুষের ভালোবাসা এবং কর্মকান্ডের মাঝে নিজেকে সারাক্ষণ বাঁচিয়ে রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। ওসি কামরুল ইসলাম মিঞা কর্মময় জীবনের শুরু থেকেই একজন চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। তার কর্মদক্ষতার ছোঁয়ায় সমৃদ্ধ করেছে সীমান্তঘেষা হালুয়াঘাটবাসীর।

ব্যক্তিগত জীবনে শান্তিপ্রিয় ও বন্ধুসুলভ এ মানুষটি সবসময় ভেবে থাকেন মানুষের কথা। একজন দক্ষ ও আদর্শবান পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে তিনি সর্বদা নিরহংকার মানুষ হিসেবে উপজেলাবাসীর হৃদয়ে ঠাই করে নিয়েছিলেন। কোনো কিছু থেকে শিক্ষা নিয়ে অন্যকে শিক্ষা দেয়ার তার রয়েছে অন্যরকম আগ্রহ। মাটি ও মানুষের টানে পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। মানুষের জন্য কিছু করতে চান তিনি। ২০০৬ সালে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে গৌরবজ্জ্বল অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটিয়ে নিজ দায়িত্বের প্রতি ছিলেন মূর্ত প্রতীক। ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল বাবা-মা’র লালিত স্বপ্ন ও আদর্শকে প্রতিষ্ঠিত করা।

অনলাইন পোর্টাল এখন সবচেয়ে জনপ্রিয়

তিনি বলেন, আমি দক্ষ কি-না তা নিজে বলতে পারব না, আমার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও সহকর্মী কিংবা যাদের সঙ্গে কাজ করি তারা ভালো বলতে পারবেন। তিক্ততার অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে বলেন, সবচেয়ে বড় তিক্ততা যখন ভালো কোনো উদ্যোগ কিংবা মানুষের জন্য ভালো কিছু করতে গিয়ে চাপের মুখে করতে না পারা। আমি সবার অভিযোগ শুনি সমাধানের ও চেষ্টা করি। আদর্শবান মানুষ যারা প্রবল বাধার মুখেও আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়না তারা সবাই আমার আর্দশের প্রতীক। পুলিশ হিসেবে দায়িত্ব পালনে সততার বিষয়টি বহুমাত্রিক। অর্পিত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে বিন্দু পরিমাণ পিছ পা হতে রাজি নন এ পুলিশ কর্মকর্তা। সাধারণ নাগরিকদের যথাযথ পুলিশি সেবা প্রদান করতে সততার অংশ বলে মনে করেন তিনি।

হালুয়াঘাট থানায় দ্বায়িত্ব পালনকালীন সময়ে মাদক, জুয়া, জঙ্গি বিরোধী উঠোন বৈঠক ও প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মত। মাদক ব্যবসা বন্ধে, মাদকসেবীদের গ্রেফতারে পুলিশকে সহায়তা করার জন্য তিনি সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। বাল্যবিয়ে রোধ এবং ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গড়ে তুলতে উপজেলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরব উপস্থিতি ছিল দৃষ্টান্ত মূলক।

সাধারণ মানুষ হেনস্থার ভয়ে অনেকেই পুলিশি সেবা নিতে ভয় পেতেন এমন অভিযোগও ছিলো অনেকের। অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম মিঞা হালুয়াঘাট থানায় যোগদানের পর থেকে থানা এলাকায় শুন্যের কোঠায় নেমে আসে চাঁদাবাজি, হয়রানি ও দালালিসহ নানা অভিযোগের চিত্র । তৎকালীন সময়ে উপজেলার সার্বিকভাবে খুব দ্্রুতই নিঃশেষ হয়ে ছিল নিয়মভঙ্গের হাজারো অনিয়ম।

মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিতে শিক্ষক প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে

গত ২০১৮ সনের ২৭ এপ্রিল ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল থানায় যোগদান করেন ওসি কামরুল ইসলাম। সেখানেও তিনি সফল ভাবে অর্পিত দ্বায়িত্ব পালন করেন। ময়মনসিংহ রেঞ্চ ও জেলায় একাদিকবার শ্রেষ্ঠ পুলিশ অফিসার হিসেবে রেঞ্চ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি ও পুলিশ সুপারগণ সন্মাননা পুরুস্কার প্রদান করেছেন এই পুলিশ কর্মকর্তাকে।

পূর্বের সাফল্য দরে রেখে আগামীর পথ চলতে চান ওসি কামরুল ইসলাম। তিনি বলেন, নান্দাইল থানা থেকে নিয়মমাফিক প্রশাসনিক ভাবে তার বদলি হয়েছে ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানায়। নান্দালে আপামর জনতাকে দীর্ঘদিন পুলিশি সেবা দিয়েছেন। সততার সহিত তার উপর অর্পিত দ্বায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করেছেন। নতুন কর্মস্থল হিসেবে গৌরীপুর থানায় যোগদান করেছেন। পুলিশি সেবা ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক পাশাপাশি মাদক,জুয়া,বাল্য বিবাহ,ইভটিজিং প্রতিরোধে গৌরীপুরবাসীর সার্বিক সহযোগীতা কামনা করেন তিনি।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares