| | বুধবার, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৮ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাটে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের গঙ্গাস্নান দশহরা মেলা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিতঃ ১০:৫৭ অপরাহ্ণ | জুন ১২, ২০১৯

ফয়সাল আজম অপু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাট গুজরঘাটে বুধবার(১২ জুন) সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মিলন মেলা তথা গঙ্গস্নান দশহরা মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সূর্যদয়ের পূর্ব থেকে কানসাট পাগলা নদীর তীরে উৎসবে মেতে উঠে সনাতন ধমার্বলম্বীরা। দশহরা মেলায় যোগ দেয়ার জন্য মঙ্গলবার সকাল থেকে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে কানসাট গুজরঘাটে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা মেলায় আসতে শুরু করেন। বিভিন্ন জেলা থেকে আসা সনাতন ধর্মাবলম্বীরা জানান, কানসাটে গঙ্গা আশ্রম এবং শ্মশান গঙ্গাঘাটটি কানসাট বাজারে দক্ষিণ পার্শ্বে অবস্থিত।

এ গঙ্গাঘাটটি দেশের সকল সনাতন ধর্মাবলীদের একটি জাতীয় তীর্থভূমি। এই তীর্থ ভূমিকে জানা-বোঝা এবং এর অতীত ইতিহাস, অন্বেষণ করা আমাদের অধিকতর কর্তব্য। সকল ধর্মপ্রাণ হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতাদের অবশ্যই উচিৎ হবে এই তীর্থটিকে গড়ে তোলা। এখানে প্রতি বছর গঙ্গা দশহরা তিথি অনুযায়ী জ্যৈষ্ঠ বা আষাঢ় মাসে সর্ববৃহৎ গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারাবাহিতকায় বুধবার কানসাট পাগলা নদীর তীরে আমরা বিভিন্ন জেলা থেকে এসে একত্রিত হয়েছি এবং গঙ্গাদেবীর কাছে প্রার্থণা করেছি।

রাজধানীতে ‘ছিনতাইকারী’ চক্রের ১১ সদস্য আটক

ধর্মপ্রাণ সনাতন ধর্মাবলম্বীরা আরো জানান, শুধু গঙ্গাদেবী প্রার্থণার্থে নয়, পাশাপাশি আমরা একের অপরে দীর্ঘদিনের সম্পর্ককে আরো অটুট রাখতেও এটি গুরুত্বপূর্ণ। আমরা অনেক দিন আমাদের আত্মীয়-স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করতে পারিনি। একটি বছর পর আমরা সকল একত্রিত হতে পারায় অনেক আনন্দ লাগছে। এব্যাপারে কানসাট গঙ্গা আশ্রম কমিটির সভাপতি শ্রী সুবোধ দত্ত জানান, আমরা কানসাট এই পাগলা নদীর তীরে ও এ নদীতে স্নান করে নিজের জীবনে জমে থাকা পাপকে বিসর্জন করি।

এছাড়া আমাদের পূর্ব পুরুষের আমল হতে এখানে এই স্নান মেলা হয়ে আসছে। আমরা তাদের স্মৃতি ধরে রাখতে চাই এবং ধর্মপ্রাণ হিন্দুরা ভক্তি সহকারে পালন করে থাকি। তিনি আরও বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও শান্তিপূর্ণভাবে এ গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হবে এবং সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares