| |

বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে ব্রিস্টলে অপেক্ষায় বাংলাদেশি সমর্থকরা

প্রকাশিতঃ 5:17 pm | June 11, 2019

স্পোর্টস ডেস্ক: আগেই জানা, খেলার ভাগ্য অনিশ্চিত। প্রকৃতি সদয় না হলে শুধু দেরি হওয়াই নয়, খেলা মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনাও খুব কম। এখানে আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রায় ৮০ ভাগ সত্য হয়। আগের দিন স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের কয়েকজনের সাথে কথা বলেই জানা গেল, তারা ধরেই নিয়েছেন ম্যাচের ভাগ্য অনিশ্চিত।অথচ এই ব্রিস্টলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলা দেখার জন্য ৮ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি টিকিট কিনে রেখেছিলেন। প্রিয় জাতীয় দলকে অকুন্ঠ সমর্থন জানাতে সব রকমের প্রস্তুতিও ছিল। কিন্তু আবহাওয়ার বৈরী আচরণে কারণে তারা খানিক দমে গিয়েছিলেন। তারপরও আজ (মঙ্গলবার) সকাল থেকে যত সময় গড়াচ্ছে মাঠে ততই প্রবাসী বাংলাদেশিদের সমাগম বাড়ছে।

পটিয়ার সাংসদ সামশুল হক চৌধুরীকে হাফেজ আহমদ চৌধুরী সম্মাননা প্রদান

স্থানীয় সময় সকাল ১০ টার (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা) পর থেকে গ্লুষ্টারশায়ার কাউন্টি ক্লাবের মাঠে আসতে শুরু করছেন বাংলাদেশের ভক্ত ও সমর্থকরা। যথারীতি তাদের অনেকের পরনে সবুজ লাল জার্সি আর হাতে প্রিয় জাতীয় পতাকা।সকালে দর্শকদের গেটে ঢোকার অনুমতি দেয়া হয়নি। পরে বেলা বাড়ার সাথে সাথে দর্শকরা মাঠে ঢোকার অনুমতি পেয়েছেন। স্থানীয় সময় ১১ টা (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টা) থেকে মাঠে দর্শক ঢোকা শুরু হয়েছে। তারা বৃষ্টিতে ভিজে, প্রচন্ড ঠান্ডা বাতাসের মধ্যেও প্রিয় জাতীয় দলকে সমর্থন জানাতে ছুটে এসেছেন মাঠে। তাদের সবার আশা, খেলা হবে এবং বাংলাদেশ জিতবে।

অ্যাওয়ার্ড বিশ্বের নির্যাতিত নারীদের উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী

এদিকে সকাল সাড়ে ১০ টার (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩.৩০ মিনিট) পিচ ও আউটফিল্ড পরিদর্শন সাময়িকভাবে স্থগিত রাখা হলেও এই তো মিনিট পাচেক আগে ঘোষণা আসলো স্থানীয় সময় বেলা ১২.১৫ টায় ( বাংলাদেশ সময় সোয়া ৫টায়) আরও একটি পর্যবেক্ষণ হবে। তারপর বোঝা যাবে অবস্থা।ঝিরঝিরে বৃষ্টির তোড়ও খানিক কমেছে। একদম বন্ধ না হলেও ছোটখাট ফোটা পড়ছে এখনো। তবে সেটাও প্রায় বন্ধের দিকে। এদিকে বাংলাদেশ টিম এখনো হোটেলেই অবস্থান করছে। স্থানীয় সময় বেলা পৌনে ১২টায় (বিকেল পৌনে ৫টায়) জাগো নিউজের সাথে মুঠোফোন আলাপে মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানালেন, ম্যাচ রেফারি তাদের বেলা একটায় (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টা) মাঠে আসার কথা বলেছেন। বাংলাদেশ দলের বাস টিম হোটেল ব্রিস্টলের মার্কারি হল্যান্ড হাউজ থেকে পৌনে একটার দিকে মাঠের উদ্দেশ্যে রওনা হবে।

হালুয়াঘাটে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন মন্দিরে আর্থিক অনুদান প্রদান

এদিকে তিনটি সুপার সপার (মাঠ শুকানোর ও পানি চুষে নেবার যন্ত্র) দিয়ে অনবরত পিচ কভারে জমে থাকা পানি শুষে নেয়ার কাজ চলছে। স্থানীয় সময় সেই সকাল ১০টারও আগে থেকেই মাঠ কর্মীরা মাঠ ও পিচ কভারের ওপর জমে থাকা সরানোর কাজে ব্যতিব্যস্ত। সবারই প্রত্যাশা, খেলা মাঠে গড়াক।অনেকেই জানতে চেয়েছেন, শেষ পর্যন্ত কয়টা পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন আম্পায়াররা? যতদূর জানা গেছে অন্তত স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা (বাংলাদেশ সময়) রাত আটটা পর্যন্ত অপেক্ষা করা হবে। তার আগে মাঠ ও পিচ খেলা উপযোগী হলে আর আবহাওয়া ভাল হয়ে গেলে কার্টেল ওভারের খেলা হবার সম্ভাবনা থাকবে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares