| | রবিবার, ৩১শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

ঈদে মিষ্টি খাবার

প্রকাশিতঃ ১:৩০ অপরাহ্ণ | জুন ০৩, ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক:ঈদের দিন মিষ্টি কিছু না হলে কি চলে?বিশেষ করে সেমাই, জর্দা, ফিরনি এগুলো সবারই অনেক পছন্দের। ঈদের দিন রান্নার জন্য রইল মিষ্টি কিছু খাবারের রেসিপি

লাচ্ছা সেমাই

উপকরণ : লাচ্ছা সেমাই ২০০ গ্রাম, চিনি ১ কাপ, পানি ১ কাপ, কিসমিস ২ টেবিলচামচ, পেস্তা বাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ, আখরোট ২ টেবিল চামচ কুঁচি করে কাটা, দারুচিনি ২ টা, এলাচি ২টা, ক্রিম ৪ টেবিলচামচ

প্রস্তুত প্রণালি : একটা ফ্রাই পেনে ঘি দিয়ে তাতে লাচ্ছা সেমাইগুলো ভেঙে ভাজতে থাকুন। সেমাইগুলো বাদামি না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। এতে চিনি দিয়ে এক মিনিট নাড়তে থাকুন। এবার এতে পানি, কিসমিস, দারুচিনি, এলাচ, কিছু বাদাম কুঁচি দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। সেমাইটা ১০ মিনিট ঢেকে রাখুন। মাঝে মধ্যে নেড়ে দিন। পানি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত সেমাইটা সিদ্ধ করুন। রান্না শেষে বাকী বাদাম কুঁচি ও ক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন।

শাহী জর্দা পোলাও 

উপকরণ : ২ কাপ পোলাওয়ের চাল, চিনি আড়াই কাপ, মাওয়া ৩ টেবিল চামচ, দারুচিনি, এলাচ, লবঙ্গ, তেজপাতা প্রয়োজন অনুযায়ী, ঘি আধা কাপ, জর্দার রঙ ১ চামচ, কিসমিস ৩ টেবিলচামচ, কমলার রস এক কাপের চতুর্থাংশ, বাদাম কুঁচি আধা কাপ, গোলাপজল ১ টেবিল চামচ

সাজানোর জন্য : ছোট গোলাপজামুন, পেস্তা বাদাম কুঁচি ৪ টেবিলচামচ, ক্রিম প্রয়োজন অনুযায়ী

প্রস্তুত প্রণালি : এক বড় প্যানে পানি নিন। পানিটা ফুটে গেলে এতে চালগুলো সিদ্ধ করুন। চালগুলো শতকরা ৯০ ভাগ সিদ্ধ হলে চালগুলো ছেঁকে ফেলুন।

একটা বড় কড়াইয়ে আধা কাপ পানিতে চিনিটা গলিয়ে ফেলুন।  এতে গরম মসলাগুলো দিন। এখন এতে রান্না করা চাল আর জর্দার রঙটা যোগ করে ভালভাবে মেশান। এবার এতে ঘি , কমলার রস  এবং গোলাপজল দিন। এখন মাওয়া মিশিয়ে ভালভাবে মেশান। গোটা মিশ্রণটা ১৫ থেকে ২০ মিনিট ঢেকে রেখে অল্প আঁচে রান্না করুন। এখন এতে কিমমিস, সামান্য বাদাম কুঁচি, ছোট মিষ্টি মিশিয়ে নামিয়ে ফেলুন। পরিবেশনের আগে বেঁচে যাওয়া বাদাম কুঁচি, ক্রিম মিশিয়ে দিতে পারেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares