| |

‘বেতনভোগী’ রাজাকারদের তালিকা সংরক্ষণের সুপারিশ

প্রকাশিতঃ 7:36 pm | May 26, 2019

স্টাফ রিপোর্টার : মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের থানা, মহকুমা, জেলা প্রশাসন থেকে বেতন-ভাতা উত্তোলনকারী রাজাকারদের তালিকা সংরক্ষণের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। রাজাকারদের এ তালিকা ধরে ব্যবস্থা নেয়ারও সুপারিশ করা হয়।

রবিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চতুর্থ বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি শাজাহান খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম এবং কাজী ফিরোজ রশীদ অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি শাজাহান খান বলেন, ‘রাজাকার, আল-বদর, আল-শামসদের তালিকা প্রকাশ করার কথা থাকলেও নানা জটিলতায় তা আটকে আছে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। তাদের দাবি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলে (জামুকা) এ-সংক্রান্ত বিদ্যমান আইনে শুধু মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা করার কথা উল্লেখ আছে। এ জন্য রাজাকার, আল-বদর, আল-শামস বা স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা করার আইনগত কোনো ভিত্তি নেই। তবে এ আইন সংশোধন করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। এ জন্য সংসদীয় কমিটি মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের থানা, মহকুমা, জেলা প্রশাসন থেকে বেতন-ভাতা উত্তোলনকারী রাজাকারদের তালিকা যথাযথভাবে সংরক্ষণের সুপারিশ করেছে। এসব তালিকা দলিল হিসেবে কাজ করবে।

গুলশান পিংক সিটিতে চলছে বিশেষ অভিযান

বৈঠক শেষে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্মাণাধীন ‘স্বাধীনতা স্তম্ভ’ প্রকল্প পরিদর্শন করবে কমিটি। ২৮ মে সকাল ১১টায় সেখানে যাবেন কমিটির সদস্যরা। কাজের অগ্রগতি দেখতে সেখানে যাওয়া হবে।

জানা গেছে, বৈঠকে মুক্তিযুদ্ধের তালিকা যাচাই-বাছাই কার্যক্রমের অগ্রগতি সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং বিভিন্ন সংস্থার প্রধানসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares