| | বৃহস্পতিবার, ৭ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২১শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী |

নবাবগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা গ্রেফতার-২

প্রকাশিতঃ ৫:১৮ অপরাহ্ণ | মে ০৩, ২০১৯

জাকিরুল ইসলাম, বিরামপুর, (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় নদী খননকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নবাগত উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ এই মামলার সাথে জড়িত হেলাল ও রাজু নামের দুই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছে।
মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়োগকৃত ঠিকাদার নবাবগঞ্জ উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের মোগড়পাড়া ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন মাহেলা (করতোয়া) নদীতে ৩০ এপ্রিল খনন কাজ শুরু করে।
১মে বুধবার বিকেলে স্হানীয় জনসাধারণের নিকট খনন কাজটি নিম্নমানের হওয়ায় নদীর পার্শে মোগরপাড়া বারুনী ব্রিজে মামলার বাদী সোহেল রানাসহ স্হানীয় কয়েকজন খনন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারের পক্ষে চেয়ারম্যানের ছেলে সাফিউল আলম পিলুকে কাজের মান সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেন। এসময় সন্তোষজনক জবাব দিতে না পারায় উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়।
http://dainiksomoysangbad24.com/archives/61836
একপর্যায়ে পিলু উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমানকে মোবাইল ফোনে সংবাদ দিলে চেয়ারম্যান দলবলসহ ঘটনাস্হলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা না করে তাদের উপর আতর্কিত হামলা চালায় ও চেয়ারম্যানের কাছে থাকা শর্টগান দিয়ে বাদীসহ লোকজনকে লক্ষ করে গুলি ছোড়ে। এসময় বাদীর সাথে থাকা লিটন ও রন্জু নামক দুই ব্যাক্তি গুলিবিদ্ধসহ ৬ জন আহত হয়।
এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের পৃর্বক দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares