| | শুক্রবার, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

চুয়াডাঙ্গায় বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি নিহত

প্রকাশিতঃ ৫:৩০ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৩, ২০১৯

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। নিহতের নাম রুহুল আমিন (৪২)। শুক্রবার রাত সোয়া ১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার উকতো নামক গ্রামের ঈদগা মাঠের নিকট গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এ তথ্য দিয়ে সদর থানা পুলিশ বলেছে, গোলাগুলিতে সদর থানার এসআই একরামসহ পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধারের পাশাপাশি একবস্তা ফেনসিডিল, একশ পিচ ইয়াবা, দুটি রামদা ও একটি শাটারগান উদ্ধার করে। নিহত রুহুল আমিন চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের শান্তিপাড়ার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে। রুহুল আমিন আলোচিত ও অসংখ্য মাদক মামলার আসামি শিপরার ভাই। রুহুল আমিনের বিরুদ্ধেও ১৬টি মাদক মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আবু জিহাদ মোহাম্মদ ফকরুল আলম খান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের উকতো নামক গ্রামের রাস্তা রাতে একদল মাদক চোরাকারবারি মাদকের বড় চালান নিয়ে যাবে। এ তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার রাত ১২টার দিকে সদর থানার এসআই একরাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উকতো গ্রামের ঈদগা ময়দানের নিকট বাঁশঝাড়ের ভেতর অবস্থান নেন।

ব্রুনাইয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের ৬ এমওইউ সই

রাত আনুমানিক সোয়া ১টার দিকে একদল পাচারকারি ঈদগা অতিক্রম করার সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির পর ঘটনাস্থল তল্লাশি করে উদ্ধার করা হয় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকা একব্যক্তিসহ উল্লেখিত আগ্নেয়াস্ত্র ও মাদকদ্রব্য। গুলিবিদ্ধ ব্যাক্তিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা.মশিউর রহমান তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ আরও বলেন, গোলাগুলির সময় এসআই একরামুল, এসআই ভবতোষ রায় ও কনস্টেবল আদুল ইসলাম আজাদ আহত হন। আহতদের চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এদিকে পরদিন শনিবার শনিবার রুহুল আমিনের মৃতদের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares