| | রবিবার, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী |

‘বঙ্গবন্ধু না থাকলে দেশ স্বাধীন হতো না’

প্রকাশিতঃ ১০:৩৭ অপরাহ্ণ | মার্চ ১৮, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু কিশোর বয়স থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রাম কওে গেছেন। তিনি না থাকলে এদেশ কখনো মুক্ত হতো না স্বাধিন হতো না। জীবনের অধিকাংশ সময় ব্যয় করেন বাঙালি জাতির মঙ্গলে আন্দোলন-সংগ্রামে-এমন মন্তব্য করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও কলাম লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ।

সোমবার (১৮ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে বাংলাদেশ অলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের (বোয়াফ) উদ্যোগে ‘আন্দোলন-সংগ্রামে বঙ্গবন্ধু’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভেতরে এমন মানবিকতা ছিল তা ভাষায় প্রকাশ করা কঠিন। তিনি খাবার আগে তাঁর সঙ্গে যারা থাকতেন তাদের খবর নিতেন। এমন কি গাড়ি চালকদের কে খেয়েছে কে খায়নি সব তদারকি করে তারপর নিজে খেতেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যদি আন্দোলন-সংগ্রামে না থাকতেন তাহলে এই দেশ কখনোই মুক্তি পেতো না। তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতাস্বরূপ বঙ্গবন্ধুর শত বর্ষ পালন করা বাঙালি জাতির অবশ্য কর্তব্য।’

সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা ও আইনজীবী ব্যারিস্টার এম আমীর উল ইসলাম বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু মানবিকতার বিষয়টি সবচেয়ে বড় করে দেখতেন। মানবিকতার জন্যও তিনি জেল খেটেছেন। মানবিকতার শক্তি দিয়েই তিনি নেতৃত্ব ধরে রেখেছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর মধ্যে সাম্য, মানবিক মর্যাদা এবং সামাজিক ন্যায় বিচার বিদ্যমান ছিল। এই তিনটি গুণ তাঁর মধ্যে ছিল বলেই তিনি রাজনীতিতে বিশাল স্থান পেয়েছিলেন। আপামর মেহেনতি জনতা তাকে সম্মান করতো, শ্রদ্ধা জানাতো, সমীহ করতো।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু মানুষকে মানবিকতার দৃষ্টি দিয়ে দেখতেন বলেই তিনি দেশে ও বিদেশে এতো জনপ্রিয় নেতা ছিলেন। মানুষের মন জয় করেই যে কোন ব্যাপারে সম্মতি দিতেন।’

ব্যারিস্টার এম আমীর উল ইসলাম বলেন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু ৭০ এর নির্বাচনেও জনগণের মন জয় করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর জানতেন তাঁর নেতৃত্বের প্রধান উৎস জনগণ। তাই তিনি যে কোন ব্যাপারে সবার সঙ্গে মতবিনিময় করতেন এবং সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারতেন।’

বোয়াফ সিনিয়র সদস্য তুলি হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনা অংশগ্রহণ করেন সংবিধান প্রণেতা ও বিজ্ঞ আইনজীবী ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও কলাম লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও কলাম লেখক বখতিয়ার উদ্দীন চৌধুরী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares