| | শনিবার, ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী |

মদনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৭টি বসত ঘর ভষ্মিভূত, অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

প্রকাশিতঃ ৮:২৭ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার : নেত্রকোনার মদন উপজেলায় অগ্নিকােণ্ডে ৭টি বসত বাড়ি ভষ্মিভূত হয়ে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার উপজেলার নায়েকপুর ইউনিয়নে গাবরদেওতলা গ্রামে দুপুর ২ ঘটিকার সময় এ ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বিদুৎতের সটসার্কিট থেকে এ ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসী জানান।

অগ্নিকান্ডে মোঃ ফারুক মিয়া,মোখলেছ,রহিছ মিয়া,হরমুজ আলী,মুর্ত্তুজ আলী,আব্দুল মৌলা,তৌহিদ মিয়ার বসত ঘর, স্বর্ণা লংকার নগদ টাকা,ধানচাল, বিভিন্ন আসবাবপত্রসহ প্রায় অর্ধকোটি টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। এ খবর শোনে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট প্রায় দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে,ক্ষতিগ্রস্ত ফারুক জানান, দুপুর আনুমানিক ২ ঘটিকার সময় মোখলেছের বসত ঘরে বিদুৎতের সটসার্কিটে আগুনের সূত্রপাত ঘটলে মূহূর্তেই চার দিকে আগুনের লেলিহান ছড়িয়ে পড়ে। এতে আমার ঘর নিয়ে ১০/১২টি বসত ঘরের সবকিছু পুরে ছাই হয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিস আসলেও আমাদের কোন কিছুই রক্ষা করতে পারেনি।

আমাদের চিৎকারে আশে পাশের লোকজন এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। গণসংযোগের সময় এ ঘটনা দেখে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল ফায়ার সার্ভিসে ফোন দেয়। মদন ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে আগুন নিভাতে সক্ষম হয়।

ফায়ার সার্ভিসের উপজেলা সাব অফিসার জয়নাল আবেদিন জানান, এ অগ্নিকাণ্ডে ৭টি পরিবারের ১২টি
ঘর পুরে ছাই হয়ে গেছে। তবে ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনি।

সময় এ খবর শোনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ওয়ালীউল হাসান,ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান রোমান ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের শান্তনা দেন। নির্বাহী অফিসার জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা আবেদন করলে টিন সহ আর্থিক অনুদান দেয়া হবে। এ সময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে শাড়ি কাপড় ও নগদ অনুদান তোলে দেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares