| | বুধবার, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত থাকবে শৈত্যপ্রবাহ

প্রকাশিতঃ ৩:৫১ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ৩০, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার : দেশজুড়ে চলতি বছরের শেষ শৈত্যপ্রবাহ চলছে। এই শৈত্যপ্রবাহ চলছে জোরালো না মৃদু আকারে। যা থাকবে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত।

নদী ও নদী অববাহিকায় শেষরাত থেকে সকালের সূর্য ওঠার আগ পর্যন্ত কুয়াশা থাকবে। আর এই শৈত্যপ্রবাহের ফলে অনুভূত শীতের মাধ্যমে বিদায় নেবে এই মৌসুমের শীত।

টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, রাজশাহী, পাবনা, রংপুর, পঞ্চগড়, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, খুলনা, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল, ভোলা ও মৌলভীবাজার জেলাসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের ফোরকাস্ট অফিসার আবদুর রহমান খান বলেন, গতকাল (মঙ্গলবার) থেকে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। এটি আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহ নাগাদ অব্যাহত থাকতে পারে। এ সময় দেশের গড় তাপমাত্রা কয়েক ডিগ্রি কমে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামতে পারে।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে বিগত কয়েকদিনের থেকে বেশি শীত অনুভূত হয়। আগামী কয়েক দিনে এই শীত আরো বেশি অনুভূত হতে পারে।

এদিকে আজ বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের বিভিন্ন জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকবে।

আবহাওয়া মূলত শুষ্ক থাকবে তবে আকাশ থাকবে হালকা মেঘাচ্ছন্ন। রাতের তাপমাত্রা দিনের থেকে ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত কমতে পারে। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ থাকবে ৫১ শতাংশ। আর প্রতি ঘণ্টায় সর্বনিম্ন ৬ কিলোমিটার থেকে ১০ কিলোমিটার বেগে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে প্রবাহিত হবে বাতাস।

সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশ এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

পূর্বাভাসে আরো বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares