| |

খুলনায় যে কোন উৎসবে পটকা ও আতশবাজি নিষিদ্ধ

প্রকাশিতঃ 11:41 pm | January 20, 2019

আতিয়ার রহমান খুলনা অফিস : খুলনা পবিত্র শবে বরাত ও পূজা অনুষ্ঠানে পটকা ও আতশবাজি নিষিদ্ধ থাকলেও এবার খুলনায় যে কোন ধরণের উৎসব বা অনুষ্ঠানে বিস্ফোরক দ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি, অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন এবং ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) ভারপ্রাপ্ত কমিশনার এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এ বিষয়ে সচেতনতার লক্ষ্যে শনিবার (১৯ জানুয়ারি) কেএমপির পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। যা চলবে ৭ দিন পর্যন্ত।
কেএমপির গাড়ি নিয়ে মাইকিং করা অবস্থায় মহানগরীর সাত রাস্তার মোড়ে দুপুরে কথা হয় খুলনা সদর থানার এএসআই আবুল কালামের সাথে।

এসময় তিনি বলেন, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রাকিবুল ইসলাম শুক্রবার এক সভার মাধ্যমে যে কোন অনুষ্ঠানে ক্ষার জাতীয় বা বিস্ফোরক দ্রব্য, আতশবাজি, পটকাবাজি, অন্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহন, বিক্রয় এবং ফোটানো নিষিদ্ধ করেছেন।

তিনি জানান, কোন ধর্মীয়, সামাজিক, পারিবারিহ অথবা রাজনৈতিক অনুষ্ঠানে আতশবাজি, পটকাবাজি ফোটানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একই সাথে ফুটপাতে কোন দোকান না বসা, স্কুল কলেজের সামনে বিড়ি/সিগারেট বেচা কেনা করতেও নিষেধ করা হয়েছে। এ আদেশ অমান্যকারীর বিরদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে নিষেধাজ্ঞায় উল্লেখ করা হয়েছে। নগরবাসীকে এ নিষেধাজ্ঞা মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।

কেএমপির এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন নগরবাসী। তারা বলছেন, গত কয়েক বছর ধরে নগরীসহ আশপাশের এলাকায় প্রচ আওয়াজে উচ্চশব্দের পটকা ফুটানোর কারণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছিল জনজীবন। বিশেষ করে শিশু, বৃদ্ধ ও হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তিরা সময় অসময়ের এসব পটকার বিকট শব্দে অসহনীয় সময় পার করছিলেন।

এ প্রসঙ্গে মহানগরীর মোসলমান পাড়া এলাকার বাসিন্দা জানে আলম শামস বলেন, বিভিন্ন স্থানে দিনে ও রাতের বেলায় পটকা ও আতশবাজি করে শহরের বাসাবাড়ীতে প্রচন্ড রকমের ভীতিসঞ্চার ও আতঙ্কের সৃষ্টি করা হয়। পটকা, বোমার অস্বাভাবিক শব্দে শহরের বাসিন্দারা অতিষ্ট হয়ে উঠেছিল। কেএমপির এমন সময় উপযোগী সিদ্ধান্তকে তিনি স্বাগত জানিয়েছেন।

কেএমপির ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রাকিবুল ইসলাম বলেন, আমি নিজেই আতবাজি ও পটকার বিরদ্ধে প্রচারণায় নেমেছি। সবকটি ক্লাব ও কমিনিউটি সেন্টারকে যে কোন অনুষ্ঠানে আতশবাজি বন্ধের নির্দেশ দিয়ে চিঠি দিয়েছি। এরপরও যদি কোথাও পটকা বা আতশবাজির সাথে কেউ জড়িত থাকে তার বিরদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares