| | মঙ্গলবার, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ২৪শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

বাবার কবরে সমাহিত হলেন আবু বকর চৌধুরী

প্রকাশিতঃ ৬:১৭ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১৫, ২০১৯

নিউজ ডেস্কঃ আজিমপুর কবরস্থানে বাবার কবরে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন দৈনিক মানবকণ্ঠ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী। জাতীয় প্রেসক্লাবে দ্বিতীয় জানাজা শেষে বিকেল সাড়ে ৩ টায় আজিমপুর কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। তার বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এক শোক বিবৃতিতে তথ্যমন্ত্রী আবু বকর চৌধুরীর কর্মময় জীবনের কথা স্মরণ করে বলেন, তার মৃত্যুতে আমরা একজন নিবেদিত প্রাণ সংবাদকর্মীকে হারালাম।

এর আগে বাদ যোহর ধানমণ্ডির তাকওয়া মসজিদে প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর আবু বকর চৌধুরীর মরদেহ দুপুর সোয়া দুইটায় অন্তিম শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য জাতীয় প্রেসক্লাবে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ২টা ৪০ মিনিটে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন, বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামসহ বিভিন্ন সংঠনের নেতৃবৃন্দ ও প্রয়াতের সহকর্মীরা কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে নিজের বাসায় হার্ট অ্যাটাক করেন আবু বকর চৌধুরী। এ সময় নিকটতম ইবনে সিনা হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আবু বকর চৌধুরী ১৯৬৪ সালের ২১ জুন রাজধানীর গ্রীন রোড এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। বাবা আবদুল হালিম চৌধুরী ও মা রাজিয়া খাতুন। নয় ভাই বোনের মধ্যে তিনি ষষ্ঠ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি ম্যানেজমেন্টে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। ২০১১ সালের ১ অক্টোবর তিনি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

১৯৯১ সালে ‘সাপ্তাহিক প্রত্যায়ন’ পত্রিকায় নির্বাহী সম্পাদক পদে যোগদানের মধ্য দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন তিনি। এরপর ‘সাপ্তাহিক খবর’-এর নির্বাহী সম্পাদক ও ১৯৯৫ সালে ‘আজকের কাগজ’-এ সহযোগী সম্পাদক হিসেবে যোগদান করেন। এক সময় ‘আজকের কাগজ’ বন্ধ হয়ে গেলে তিনি ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রধান বার্তা সম্পাদক হিসেবে ‘আমাদের সময়’ পত্রিকায় যোগ দেন। ওই বছরের অক্টোবরে তিনি ‘সকালের খবর’-এ বার্তা সম্পাদক ও ২০১১-এর এপ্রিলে ‘সমকাল’ পত্রিকায় বার্তা সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন।

২০১২ সালে তিনি বার্তা সম্পাদক হিসেবে ‘দৈনিক মানবকণ্ঠে’ যোগদান করেন। এরপর ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে তিনি পত্রিকাটির বার্তা সম্পাদকের পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে ২০১৭ সালে তিনি নির্বাহী সম্পাদক হন। পরবর্তীতে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে পুনরায় মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

বিএফইউজে ও ডিইউজের শোক: আবু বকর চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)। মঙ্গলবার এক যৌথ বিবৃতিতে বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, ডিইউজে সভাপতি আবু জাফর সূর্য ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী বলেন, আবু বকর চৌধুরী ছিলেন পেশাদার সাংবাদিকতার এক উজ্জ্বল নাম। তিনি অধুনালুপ্ত খবরের কাগজ, আজকের কাগজ, সকালের খবর, আমাদের সময়, সমকালসহ দেশের প্রথম সারির বিভিন্ন সংবাদপত্রে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে নিজের দক্ষতা ও যোগ্যতা প্রমাণে সমর্থ হয়েছিলেন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে ধাপে ধাপে তিনি সংবাদপত্রের শীর্ষ পদে আসীন হলেও কখনো আদর্শচ্যুত হননি। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আবু বকর চৌধুরী অসাম্প্রদায়িক সমাজ বিনির্মাণে সংগ্রাম চালিয়েছেন আজীবন। তার মৃত্যুতে সংবাদপত্র জগতে যে শূন্যতার সৃষ্টি হলো তা সহজে পূরণ হবার নয়। বিবৃতিতে নেতারা আবু বকর চৌধুরীর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares