| |

সৈকতে ভেসে উঠল প্রথম বিশ্বযুদ্ধের জার্মান সাবমেরিন

প্রকাশিতঃ 3:54 pm | January 14, 2019

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ফ্রান্সের উত্তর উপকূলীয়বর্তী একটি সমুদ্র সৈকত থেকে ভেসে উঠেছে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ডুবে যাওয়া একটি সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ। গত একশ বছর ধরে সমুদ্রের বালির নিচে ছিল সেটি।

ফ্রান্সের অন্যতম বন্দর শহর ক্যালাইসের কাছে অবস্থিত সমুদ্র তীরবর্তী উইসেন্ট নামক স্থানে ইউসি-৬১ নামের জার্মান ওই সাবমেরিনটির ধ্বংসাবশেষ ভেসে উঠেছে। আর তা দেখতে সেখানে ভিড় জমাচ্ছেন হাজার হাজার দর্শনার্থী। খবর বিবিসি’র।

জানা গেছে, ১৯১৭ সালের জুলাইয়ে বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন জার্মানির এই সাবমেরিনটি সমুদ্রে ডুবে যায়।

উইসেন্টের মেয়র বার্নার্ড বাজ বলেন, গেল ডিসেম্বর থেকে সাবমেরিনটির দুটি অংশ দেখা যাচ্ছে। প্রতি দুই থেকে তিন বছর পরপর এই সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ দেখা যায়। এটা নির্ভর করে স্রোত এবং বালি সরানো বাতাসের ওপর। কেননা বাতাসের ধাক্কায় সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষটি পুনরায় হারিয়ে যেতে পারে।

তবে স্থানীয় ট্যুর গাইড ভিনসেন্ট শমিট জানান, তিনি বিশ্বাস করেন বাতাসের প্রবাহ ও জোয়ার-ভাটার ফলে সাবমেরিনটির ধ্বংসাবশেষ আরো দৃশ্যমান হতে পারে।

ঐতিহাসিকেরা বলছেন, জার্মানির ইউসি-৬১ নামের এই সাবমেরিনটি বিশ্বযুদ্ধের সময় মাইন বিস্ফোরণ ও টর্পেডো ছুড়ে প্রতিপক্ষের এগারোটি জাহাজ ডুবিয়েছে। তবে শেষ পর্যন্ত এটি বেলজিয়াম থেকে ফ্রান্স যাওয়ার পথে ডুবে যায়। পরে সাবমেরিনটির ২৬ জন ক্রু ফ্রান্সের কাছে আত্মসমর্পণ করে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares