| |

লজ্জার রেকর্ড গড়ল চীন নারী দল

প্রকাশিতঃ 12:13 pm | January 14, 2019

স্পোর্টস ডেস্কঃ চীনের নারী ক্রিকেট দল। শুনে অবাক হবেন না। থাইল্যান্ড টি টোয়েন্টি স্ম্যাশ আসরে এক লজ্জার রেকর্ড গড়ছে তারা। গ্রুপ বি এর খেলায় মুখোমুখি হয় চীন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। সেখানেই লজ্জার রেকর্ড গড়েছে তারা।

টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় সংযুক্ত আরব আমিরাত নারী ক্রিকেট দল। প্রথমে ব্যাট করে ২০৩ রান করে আরব আমিরাত দল। আরব আমিরাতের পক্ষে ইশা ওঝা ৬২ বলে ৮২ রান করেন। চীনের সাত বোলারের পাঁচজন ওভার প্রতি দশ রানের বেশি করে দেয়।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৪ রানে অলআউট হয়ে যায় চীন দল। ৪৮ মিনিট ও দশ ওভারে অলআউট হয় চীন। দলের ছয়জন খেলোয়াড় রানের খাতা খুলতে ব্যর্থ হয়। চীনের পক্ষে রান করেন ওপেনার ঝাং চাং ( ২), ঝাং ইয়ানলিং ( ২), হিন লিলি ( ৪) ও ঝোও ইয়ং ( ৩)। অতিরিক্ত থেকে রান আসে দুইটি।

চীনের নারী দলের ১৪ রানে অলআউট হওয়া আন্তর্জাতিক নারী টি-টোয়েন্টিতে সর্বনিম্ন দলীয় স্কোর। ফলে ১৮৯ রানে হারতে হয় চীনকে। হারের ব্যবধানের দিক দিয়েও এটি সর্বোচ্চ। এর আগে সর্বোচ্চ রানে হারের ব্যবধান ছিলো নামিবিয়ার বিপক্ষে লেসোথোর ১৭৯ রানের হার।

আসরটিতে থাইল্যান্ড ও চীন ছাড়াও অংশ নিচ্ছে নেপাল, ভুটান, ইন্দোনেশিয়া, মায়ানমার , মালেয়শিয়া, হংকং ও থাইল্যান্ড এ দল। আসরটি ২০২০ নারী বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাছাইপর্বের প্রস্তুতির জন্য খুব সহায়ক একটি আসর হবে দলগুলোর জন্য।

গত বছর আইসিসি ঘোষণা দেয় আইসিসির সব সদস্যদের মাঝে টি টোয়েন্টি খেলাগুলো আন্তর্জাতিক মর্যাদা পাবে। বিশ্বব্যাপী দেশগুলোর মাঝে ক্রিকেট নিয়ে আগ্রহ বাড়ানোর জন্যই আইসিসির ১০৪ সদস্যের সবাইকেই টি-টোয়েন্টিতে আন্তর্জাতিক মর্যাদা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আইসিসি।

আইসিসির এই সিদ্ধান্তের মূল উদ্দেশ্য ছিলো ক্রিকেটের টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটকে এমন সব অঞ্চলে জনপ্রিয় করা। নারীদের জন্য এই নিয়ম বাস্তবায়ন হয় ১ জুলাই ২০১৮ থেকে, যদিও এর আগে জুন মাসে হওয়া নারী এশিয়া কাপের সব ম্যাচকেও আইসিসি আন্তর্জাতিক মর্যাদা দেয়। পুরুষদের টি টোয়েন্টি খেলা আন্তর্জাতিক মর্যাদা পায় ১ জানুয়ারি ২০১৯ থেকে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares