| |

ঢাকার কাছে পাত্তাই পেল না খুলনা

প্রকাশিতঃ 5:38 pm | January 08, 2019

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয় সাবেক চ্যাম্পিয়ন ঢাকা ডায়নামাইটস ও খুলনা টাইটানস। মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে বেলা ১২ টা ৩০ মিনিটে শুরু হওয়া ম্যাচটিতে প্রথমেই টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন টাইটানস দলপতি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯২ রানের সংগ্রহ পায় ঢাকা ডায়নামাইটস। ১৯৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৯ উইকেটে ৮৭ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইটানস। ফলে ১০৫ রানের বড় ব্যাবধানে ম্যাচ জিতে নেয় ঢাকা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকঃ ১৯৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে সাকিবের বোলিং ঘূর্ণীতে প্রথমে সুবিধা করতে পারেনি খুলনা টাইটানস। ইনিংসের ২য় ওভারেই সাকিব ফেরান স্টারলিংকে। ৮ ওভার ৩ বলে ৬০ রান তুলতেই খুলনা হারিয়ে ফেলে ৫ উইকেট। ভয়ঙ্কর হতে থাকা জুনায়েদ সিদ্দিককেও ফিরিয়ে দেন সাকিব আল হাসান। জুনায়েদ করেন ১৬ বলে ৩১ রান। অধিনায়ক রিয়াদও দিতে পারেনি আস্থার প্রতিদান। ৮ রান করে শুভাগত এর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। রিয়াদের পরে বিদায় নেন শান্ত।

দ্বিতীয় স্পেলে বোলিং করতে এসেও ভয়ঙ্কর রূপে আবির্ভাব হন সাকিব। দারুণ এক আর্ম বলে ফেরান ডেভিড ওয়াইসকে। খুলনা টাইটানসের জেতার জন্য তখন দরকার ৫০ বলে ১১০। ১৩ তম ওভারে এসে নারিনের জোড়া আঘাতে খুলনার জেতার সম্ভাবনা ম্লান হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ১৩ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৮৭ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইটানস। ফলে বিপিএলের ২য় ম্যাচেও ১০৫ রানের বড় ব্যাবধানে হারতে হয় দলটিকে। ঢাকার হয়ে ৩ উইকেট নেন সাকিব, নারিনের শিকার ২ উইকেট।

প্রথমে খুলনার বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে হজরতুল্লাহ জাজাই ও নারিনের ব্যাটে দারুণ সূচনা পায় সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইট। মাত্র ৫ ওভারেই তোলেন ৬৭ রান। ৫ম ওভারের প্রথম বলে আলি খানের বলে ওয়াইসের হাতে ক্যাচ দিয়ে নারিন যখন ফেরেন স্কোরবোর্ডে তৎক্ষণে উঠে গেছে ৬৭ রান। সুনিল নারিন ১৪ বলে করেন ২ চার ও ১ ছয়ে ১৯ রান।

দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতেই জাজাই-রনি টাইটানস বোলারদের উপর তাণ্ডব চালাতে থাকে। ব্যাক্তিগত ১৮ রানে মাহমুদুল্লার বলে রনি তালুকদার ডিপ মিডউইকেটে সহজ ক্যাচ তুলে দিয়ে আউটের সুযোগ করে দিলেও সুযোগ লুফে নিতে ব্যার্থ হয় আইরিস ব্যাটসম্যান পল স্টারলিং। পরবর্তীতে রনি তালুকদার থামেন ২৮ রানে। রিয়াদের বলে আরিফুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি।

তারপর হঠাৎই যেন ডায়নামাইট শিবিরে নেমে আসে বিপদের ঘন ছায়া। মাত্র ৩৬ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলে আইরিশ স্পিনার পল স্টারলিংয়ের বলে ফিরেছেন ডায়নামাইটস এর আফগান রিক্রুট জাজাই। ১২ তম ওভারের ২য় বলটি অফ ষ্ট্যাম্পের কিছুটা বাইরে ছিলো। কিন্তু ডিপ মিডউইকেট দিয়ে বলটি উড়িয়ে মারতে গিয়েছিল জাজাই। তবে শেষ পর্যন্ত আরিফুল হকের হাতে ধরা পড়ে সাজঘরে ফেরেন।

আফগান এই হার্ডহিটার ফেরার ঠিক পরের বলেই ফিরতে হয়েছে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকেও। রানের খাতা খোলার আগেই ১২তম ওভারের তৃতীয় বলে পয়েন্টে শরিফুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে বসেন তিনি।

ধুঁকতে থাকা ঢাকার ত্রাণকর্তা হয়ে তৎক্ষণে মাঠে নামেন আন্দ্রে রাসেল ও কাইরন পোলার্ড। ইনিংস মেরামতের কাজ ভাল ভাবেই করে যাচ্ছিলেন এই দুই উইন্ডিজ রিক্রুট। ১৬তম ওভারের শেষ বলে মাহমুদুল্লার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যাওয়ার আগে পোলার্ড ১৬ বলে ২ ছয় ও ২ চারে করেছেন ২৭ রান। তারপর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি রাসেলও। পরের ওভারের ৫ম বলেই ওয়াইস এর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। রাসেল খেলেন ২৫ রানের ইনিংস।

শেষ দুই ওভারে আর কোনো উইকেটের দেখে পায়নি টাইটানস এর বোলাররা। দুই ওভারে শুভাগত হোম ও নুরুল হাসান সোহান জুটি করে স্কোরবোর্ডে যোগ করেন ২১ রান। অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়ে দুজন। তাদের ২১ রানের সুবাদে ঢাকা ডায়নামাইটস ১৯৩ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় খুলনা টাইটানসকে। খুলনার পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন পল স্টারলিং ও আলী খান, একটি করে নেন রিয়াদ ও ওয়াইস।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!