| |

জয়পুরহাটে ১১ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য

প্রকাশিতঃ 10:49 pm | December 22, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : জেলায় চলতি মৌসুমে ১১ হাজার ১১৫ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। আবহাওয়া ভাল থাকায় এবারও সরিষার বাম্পার ফলনের আশা করছে কৃষক ও স্থানীয় কৃষি বিভাগ। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র বাসস’কে জানায়, চলতি ২০১৮-১৯ রবি মৌসুমে জেলায় ১১ হাজার ১১৫ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। এরমধ্যে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত জেলায় ১০ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ সম্পন্ন হয়েছে। এতে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে ১৪ হাজার ৩৯০ মেট্রিক টন সরিষা।

উপজেলা ভিত্তিক সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রার মধ্যে রয়েছে জয়পুরহাট সদরে ৩ হাজার ৩৩০ হেক্টর, পাঁচবিবি উপজেলায় ৪ হাজার ৫৯০ হেক্টর, আক্কেলপুর উপজেলায় এক হাজার ৩৬০ হেক্টর, ক্ষেতলাল উপজেলায় এক হাজার ৩৫০ হেক্টর ও কালাই উপজেলায় ৫২৫ হেক্টর জমিতে এবার সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। গত ২০১৭-১৮ মৌসুমে জেলায় সরিষার বাম্পার ফলন হয়েছিল বলে জানায় সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সেরাজুল ইসলাম।

কৃষি বিভাগ আরো জানায়, উচ্চ ফলনশীল জাতের সরিষা চাষ করার জন্য বিএডিসি ৭ হাজার ৩৫০ কেজি উন্নত মানের সরিষা বীজ সরবরাহ করেছে কৃষকের মাঝে। কৃষি প্রণোদনার আওতায় কৃষকদের সরিষা বীজ ও সার প্রদান করা হয়েছে। উন্নত জাতের সরিষা বীজের মধ্যে রয়েছে বারি-১৪, ১৭ ও সম্পদ। জয়পুরহাট সদর, পাঁচবিবি, ক্ষেতলাল ও কালাই উপজেলায় সরিষার চাষ বেশি হয়ে থাকে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুধেন্দ্র নাথ রায় বাসস’কে জানায়, জেলায় সরিষা চাষ সফল করতে কৃষক পর্যায়ে ব্যাপক উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি সরিষা সংরক্ষণের জন্য উপকরণ হিসেবে ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে। এ ছাড়াও কৃষক পর্যায়ে উন্নত জাতের বীজ সংরক্ষণ প্রকল্পের অধীন কৃষি প্রণোদনার আওতায় কৃষকদের সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। আবহাওয়া ভাল থাকায় এবারও সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে আশা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় কৃষি বিভাগ।

(বাসস)


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares