| |

হাইকোর্টের নির্দেশে জামায়াত নেতার মনোনয়নপত্র গ্রহণ

প্রকাশিতঃ 4:27 pm | December 05, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : রংপুর-৫ আসনে জামায়াত নেতা গোলাম রাব্বানীর মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেছেন রিটানির্ং কর্মকর্তা। এই মনোনয়নপত্র গ্রহণ করে ফেরার পথে আটক হয়েছেন তাকে সমর্থনকারী।

বুধবার দুপুরে রাব্বানীর আইনজীবীরা এই মনোনয়নপত্র জমা দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা এনামুল হাবীব। এসময় প্রস্তাবকারী ওমর ফারুক ও সমর্থনকারী ওরম ফারুকও উপস্থিত ছিলেন।

পরে ফেরার পথে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অদূরে সাদা পোশাকে পুলিশ ফারুককে গ্রেপ্তার করে।

গত ২৮ নভেম্বর সমর্থন ও প্রস্তাবকারী না থাকায় জামায়াত নেতার মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেনি রিটার্নিং কর্মকর্তা এনামুল হাবীব। পরে ৩ ডিসেম্বর হাইকোর্ট সেই মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ দেয়।

এই আসনে বিএনপি দুই জনকে মনোনয়নের চিঠি দিয়েছিল। তারা হলেন সোলায়মান আলম ও মমতাজ হোসেন। তবে যাচাইবাছাইয়ে বাদ পড়ে যান দুই জনই। ফলে আসনটিতে বিএনপি অথবা তার জোটের কেউ প্রার্থী ছিল না। এরপর হাইকোর্টের নির্দেশে জামায়াত নেতা প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ায় এক ধরনের স্বস্তি ফিরে আসে জোটে।

অবশ্য বাদ পড়ে যাওয়া দুই বিএনপি নেতা নির্বাচন কমিশনে এরই মধ্যে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল করেছেন। তাদের কারো পক্ষে রায় এলে জামায়াত নেতা নাকি অন্য কেউ ২০ দলের হয়ে লড়বে, এই বিষয়টি নিশ্চিত হবে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা এনামুল হাবীব সাংবাদিকদের বলেন, ‘উচ্চ আদালতের নির্দেশে এই মনোনয়নপত্র গ্রহণ করা হয়েছে।’

গোলাম রাব্বানীর আইনজীবী বায়জীদ ওসমানী বলেন, ‘২৮ নভেম্বর আমি দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেছি জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে । নানা অজুহাতে তারা মনোনয়নপত্র গ্রহণ করা হয়নি। পরে আমরা উচ্চ আদালতে গেলে আদালত মনোনয়নপত্র গ্রহণের নির্দেশ দেন বিচারক। আমরা আজ মনোনয়নপত্র জমা দিলাম।

আইনজীবীদের মধ্যে আব্দুল কাউয়ুম ম-ল, আফতাফ উদ্দিন, একরামুল হক, আব্দুস সালামসহ বেশ কয়েকজন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!