| |

ব্যারিস্টার আমিনুল হকের মনোনয়ন বাতিল

প্রকাশিতঃ 5:20 pm | December 02, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনে বিএনপির প্রার্থী ও সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হকের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। যাচাই-বাছাইকালে রোববার সকালে তার মনোনয়পত্র বাতিল করেন জেলা প্রশাসক নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা এসএম আবদুল কাদের।

ব্যারিস্টার আমিনুল হকের সমর্থক ও গোদাগাড়ী পৌর বিএনপির সভাপতি মুজিবুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

মনোনয়নপত্রে মামলাসংক্রান্ত সার্টিফাইড কপি না থাকায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। তবে সার্টিফাইড কপি দাখিল করলে তিনি মনোনয়ন ফিরে পাবেন। এই আসনে ব্যারিস্টার আমিনুল হকের স্ত্রী আভা হকের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন দফতর।

১৯৯১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত এ আসনে টানা তিন মেয়াদে সংসদ সদস্য ছিলেন ব্যারিস্টার আমিনুল হক। ২০০৮ সালে আমিনুল হকের পরিবর্তে তার ভাই পুলিশের সাবেক আইজি এনামুল হক বিএনপির প্রার্থী হন। সেবার এনামুল হক পরাজিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরীর কাছে। এরপর থেকেই টানা দুই মেয়াদে এই আসনের এমপি ফারুক চৌধুরী।

জানা গেছে, রাজশাহী-১ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ১২ প্রার্থী। তারা হলেন- আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক চৌধুরী, বিএনপির ব্যারিস্টার আমিনুল হক, তার স্ত্রী আভা হক, শাহাদাত হোসেন, ওয়ার্কার্স পার্টির রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল মান্নান, বাসদের আলফাজ হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জামায়াতের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত আমির মুজিবুর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী সালাহ উদ্দিন বিশ্বাস, সাইদুর রহমান, শহিদুল কবির শিবলী ও সুজা উদ্দিন।

নির্বাচন দফতর বলছে, বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই চলবে। রাজশাহীর ছয়টি সংসদীয় আসনে এবার মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ৬৭ জন। এর মধ্যে ২৪ জন বাদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন ৪৩ প্রার্থী।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!