| |

হালুয়াঘাটে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে জমি বেদখলের অভিযোগ

প্রকাশিতঃ 10:05 pm | November 19, 2018

হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে বসত বাড়ির জমি বেদখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার নড়াইল ইউনিয়নের বাদে-খরমা গ্রামের আবুল কাসেম এর স্ত্রী ভুক্তভোগী কুলসুম বেগম একই গ্রামের মৃত ইব্রাহীম এর পুত্র আছর আলী ও আছর আলীর পুত্র আমান উল্লাহ,হাবিব উল্লাহ এর বিরুধে হালুয়াঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে প্রকাশ, বাদে-খরমা মৌজার ৫৮,৭১ নং খতিয়ানে দাগ নং ৪২ শ্রেণী কান্দা জমির পরিমাণ ১৪ শতাংশ ভোক্ত ভোগীর পিতা আব্দুল জব্বার এর নিকট থেকে পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত হয়। উল্লেখিত ব্যক্তিগণ ৫/৬ বছর পূর্বে থেকে জুরামূলে ভোগ দখল করে আসছে। স্থানীয় ভাবে বিষয়টি মিমাংসা না হওয়ায় ভুক্তভোগী গত ২০১৪ সনে ময়মনসিংহ বিজ্ঞ সহকারী দায়রা জজ আদালতে মোকাদ্দমা দায়ের করেন। যাহার নং-৯৭। মামলাটি দীর্ঘ শুনানির পর বিজ্ঞ আদালত অভিযোগকারীর পক্ষে ডিক্রী প্রদান করেন।

গত ১৫ নভেম্বার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতের প্রতিনিধিগণ জমিটিতে লাল নিশান উড়িয়ে ঢোল পিটিয়ে কুলসুমকে দখল সত্ব বুঝিয়ে দেন। ভোক্তভোগী কুলসুম ও তার মা ময়মনা খাতুন জানান, ১৯ নভেম্বার দুপুরে উক্ত জমিতে গাছের চারা রোপন করতে গেলে উল্লেখিত ব্যক্তিগণ খুন জখমের হুমকি প্রদান করে বিজ্ঞ আদালতের প্রতিনিধিগণ জমিটিতে যে লাল নিশান টানিয়ে ছিল তার একপাশের নিশান গুলি তুলে ফেলে দেয়। যা আদালত অবমাননার সামিল। এ সময় অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।

স্থানীয়রা জানান, প্রভাবশালী ব্যক্তিদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ পরিবারটি। জমিটির প্রকৃত মালিক কুলসুম বেগম। সম্প্রতি আদালত থেকে লোকজন এসে লাল নিশান ও ঢোল পিটিয়ে জমিটি বুঝিয়ে দিয়ে ছিল। অসহায় পরিবারটিকে সহযোগিতা করার জন্য সাংবাদিকদের নিকট আহবান জানান।

এ বিষয়ে আছর আলীর নিজ বাড়িতে গিয়ে তাদের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার পিপিএম বলেন, অভিযোগটি পেয়েছেন তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন ।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares