| |

খুলনায় পোস্টার-প্যানা অপসারণে মানছে না ইসির নির্দেশনা!

প্রকাশিতঃ 11:31 pm | November 15, 2018

খুলনা অফিস : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভবন, দোকান, স্থাপনা এবং যানবাহন থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীর ছবি, পোস্টার, প্যানাসহ নানা প্রচার সামগ্রী অপসারণে খুলনায় মানছে না নির্বাচন কমিশনের আদেশ। গতকাল রাত ১২টা পর্যন্ত এ সকল নির্বাচনী সামগ্রী স্ব স্ব প্রার্থীরা নিজ খরচে অপসারণের নির্দেশনা ছিল, কিন্তু নগরীর বিভিন্ন রাস্তার বিদ্যুৎ পোল ও মোড়ে শতশত প্যানা পোস্টার ও বিলবোর্ড রয়ে গেছে।

এর আগে গত রবিবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) যুগ্ম সচিব এস এম আসাদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক স্মারকে এই নির্দেশনা সকল জেলা রিটানিং অফিসারকে জানানো হয়। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় দেখা গেছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্যানা, বিলবোর্ড ও পোস্টার অপসারণ হয়নি। ইসি’র নির্দেশনার পর কিছু কিছু বিলবোর্ড অপসারণ হলেও একাধিক প্রার্থীর প্রচার সামগ্রী রয়ে গেছে। অবশ্য এ বিষয়ে কেএমপি কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবির বলেছেন, স্ব ইচ্ছায় কেউ যদি অপসারণ না করে, তাহলে সিটি কর্পোরেশন এ সকল প্রচার সামগ্রী অপসারনে পরবর্তী ব্যবস্থা নিবে।

এছাড়া যেসব ব্যক্তি বা যৌথ মালিকানাধীন ভবন, প্রতিষ্ঠান, দোকান, যানবাহন ও স্থাপনায় প্রচার সামগ্রী রয়েছে সেসব ভবন, প্রতিষ্ঠান, দোকান, যানবাহন, স্থাপনার মালিকদেরকেও নিজ নিজ উদ্যোগ এবং নিজ খরচে তা অপসারণ করতে হবে। এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসহ বিভিন্ন স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

আরও বলা হয়, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ প্রতিপালন না করা হলে তাদের বিরদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
নির্বাচন কমিশনের তফশিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ভোট গ্রহণকে কেন্দ্র করে নির্বাচনী প্রচারণা শুর হওয়ার আগে এসব পোস্টার, ব্যানার বা ফেস্টুন সরিয়ে ফেলতে এ নির্দেশনা দেয় ইসি


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!