| | বুধবার, ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

পটিয়া শ্রীমাই ফরেস্ট সড়ক ৩৬ বছরেও সংস্কার হয়নি

প্রকাশিতঃ ৮:১২ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০২, ২০১৮

পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরী : চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের পূর্বাঞ্চল শ্রীমাই ফরেস্ট সড়কের ৩৬ বছরেও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এ যাবত কালে যে কতজন পটিয়া থেকে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন সবাই সড়কটি সংস্কার কাজ করার আশ্বাস দিয়েছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এতে ঐ এলাকার লোকজন সংস্কার উন্নয়ন কাজ থেকে বঞ্চিত। ফলে ঐ এলাকার লোকজনের মধ্যে চরম ক্ষোভ রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পটিয়ার পূর্বাঞ্চল পাহাড়ে শ্রীমাই ফরেস্ট অফিস নির্মাণ করেছিলেন ব্রিটিশ সরকার আমলে। শ্রীমাই পাহাড়ে রয়েছে একটি বিট অফিস। ঐ অফিসে মাঝে মধ্যে ভিলেজার মহিউদ্দিন গিয়ে দেখাশোনা করে আসলেও রাস্তার মাঝখানে খালে পরিণত হওয়ায় মানুষ আর চলাচল করেনা। যার ফলে গাড়ি চলাচলও বন্ধ রয়েছে। স্থানীয় একটি সিন্ডিকেট মাটি ব্যবসায়ীরা ড্রেজার ব্যবহার করে রাস্তার মাঝখানে ২শ ফুট মত খালে পরিণত হয়ে জমিনে রূপ নিয়েছে। রাস্তাটি আছে কিনা তা বোঝার উপায় নেই। রাঁতের বেলায় ফরেস্ট অফিসে সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এতে সন্ত্রাসীরা নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে রাতের বেলায় শ্রীমাই ফরেস্টকে বেঁচে নিয়েছে বলে ভিলেজার মহিউদ্দিন জানান। শ্রীমাই ফরেস্ট অফিসে গাড়ি নিয়ে যাওয়া যায় না বলে বনবিভাগের কর্মকর্তারা ঐ অফিস করে না বলে সূত্রে প্রকাশ। যার ফলে পটিয়া পূর্বাঞ্চল পাহাড়ের সরকারী গাছ কর্তন করে এক শ্রেনীর কাঠ পাঁচার কারীরা জমজমাটভাবে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। গত ১ বছর আগে পটিয়ার এমপি সামশুল হক চৌধুরী নতুন ফরেস্ট অফিসের ভবন নির্মাণ করে দিলেও যোগাযোগের ব্যবস্থা না থাকায় অফিসটি বর্তমানে পরিত্যক্ত রয়েছে।

স্থানীয় সাবেক মেম্বার ইকবাল হোসেন জানান, এলাকার কৃষকরা চলাচলের রাস্তা ভালো না হওয়ায় চরম ভোগান্তী পোহাচ্ছে। তাছাড়া পাহাড়ী সন্ত্রাসীদের কারণে কৃষকরা কাজ করতে গিয়ে আছরের আগে বাড়ীতে ফিরে আসতে হয়। এলাকাবাসী রাস্তাটি সংস্কার পূর্বক সন্ত্রাসীদের আনাগোন বন্ধের জন্য প্রশাসনের উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares