| | বুধবার, ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

১০টি গাড়ি নিয়ে গণভবনের পথে ঐক্যফ্রন্ট

প্রকাশিতঃ ৬:৪১ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০১, ২০১৮

নিউজ ডেস্কঃ ড. কামালের নেতৃত্বে সংলাপে আমন্ত্রণ পাওয়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা গণভবনের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (০১নভেম্বর) বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে ড. কামালের বেইলী রোডের বাসা থেকে তারা রওনা হন। এর আগে তারা ড. কামালের বাসায় বৈঠক করেন। এদিন বিকেল থেকেই ঐক্যফ্রন্টের নেতারা ড. কামালের বাসায় আসতে শুরু করেন।

মোট ১০টি গাড়িতে করে তারা শান্তিনগর হয়ে গণভবনের উদ্দেশে বের হন। প্রথমেই ছিল ড. কামালের গাড়ি, এরপর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ অন্যান্য নেতারা ড. কামালের গাড়ি অনুসরণ করে। এর আগে, এই সংলাপের জন্য ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ১৬ জনের নামের তালিকা পাঠানো হয় আওয়ামী লীগকে। এর মধ্যে বিএনপির পাঁচ প্রতিনিধি হলেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও মির্জা আব্বাস।

তাদের সঙ্গে থাকছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ও এস এম আকরাম; গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু ও প্রেসিডিয়াম সদস্য সুব্রত চৌধুরী; জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক রতন ও সহসভাপতি তানিয়া রব; ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মনসুর ও আ ব ম মোস্তফা আমিন এবং স্বতন্ত্র হিসেবে থাকছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

গত ২৮ অক্টোবর জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট সংলাপের জন্য চিঠি দিলে পরদিন ২৯ অক্টোবর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জানান, তারা সংলাপে বসতে রাজি। ৩০ অক্টোবর সকালে সংলাপের দিনক্ষণ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চিঠি নিয়ে দলের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ যান ড. কামালের বাসায়।

জানা যায়, ১ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় গণভবনে এই সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে। এই সংলাপে অংশ নিতে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে ১৬ সদস্যের প্রতিনিধির নাম জানানো হলে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২৩ জনের নাম জানানো হয়। এবার ঐক্যফ্রন্টের তালিকায় যোগ হলেও আরও পাঁচ জন।

সংলাপের আড়াই ঘণ্টা আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে শেষ মুহূর্তে যোগ করা হয় আরও পাঁচজনের নাম।নতুন যোগ হওয়া পাঁচ জনের মধ্যে দু’জন বিএনপির ও তিন জন গণফোরামের। বিএনপির দুই নেতা হলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। অন্যদিকে, গণফোরামের তিন জন হলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান, অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিদ ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ও ম শফিকুল্লাহ। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে একটি চিঠিও দেওয়া হয় আওয়ামী লীগকে।

গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মোহসীন মন্টুর সই করা ওই চিঠিতে বলা হয়, আপনার অবগতি ও কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জানানো যাচ্ছে যে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে আজ ১ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে ১৬ জন নেতার তালিকা এর আগে পাঠানো হয়েছিল। অনিবার্য কারণবশত ওই তালিকার সঙ্গে আরও পাঁচ জনের নাম যুক্ত করা আবশ্যক। আপনার সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আব্দুস সোবাহান গোলাপের সঙ্গে এ বিষয়ে আমার কথা হয়েছে। ওই ১৬ জন নেতার সঙ্গে নিচের পাঁচ জনের নাম যুক্ত হবে। এরপর চিঠির নিচে বিএনপি’র দুই ও গণফোরামের তিন নেতার নাম পদবীসহ উল্লেখ করা হয়।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares