| |

শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আরও ১০২ উপজেলা

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ও সর্বশেষ খবর পেতে আ্যপসটি ইনস্টল করুন

প্রকাশিতঃ 9:35 pm | October 31, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় এসেছে দেশের আরও ১০২ উপজেলা। এ নিয়ে দেশের মোট ১৮২ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় এসেছে।

বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কয়েকটি প্রকল্প উদ্বোধনের সঙ্গে এ উপজেলাগুলো শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা দেবেন।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন অনুষ্ঠান নিয়ে বুধবার (৩১ অক্টোবর) রাজধানীর বিদ্যুৎ ভবনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু এবং শেখ হাসিনার বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব আহমদ কায়কাউস বলেন, ‘২০০৯ সালে সরকার ক্ষমতা গ্রহণের সময় বিদ্যুতের প্রকৃত উৎপাদন ছিল তিন হাজার ২৬৮ মেগাওয়াট। বিগত ১০ বছরে বিদ্যুতের উৎপাদন ক্ষমতা চারগুণের বেশি বেড়ে বর্তমানে ২০ হাজার ৪৩০ মেগাওয়াটে উন্নীত হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘২০০৯ সালের আগে দেশে বিদ্যুৎ সুবিধাপ্রাপ্ত জনগোষ্ঠীর ছিল ৪৭ শতাংশ যা বর্তমানে বেড়ে হয়েছে ৯২ শতাংশ।’

গত ১০ বছরে দুই কোটি তিন লাখ নতুন গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়েছে জানিয়ে সচিব বলেন, ‘৫৩ লাখ সোলার হোম সিস্টেমের মাধ্যমে দুই কোটিরও বেশি গ্রিড সুবিধা বঞ্চিত জনগোষ্ঠী বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় এসেছে।’

‘বর্তমানে মোট ১৩ হাজার ৬৫৪ মেগাওয়াট ক্ষমতার ৫৫টি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণাধীন আছে। এ ছাড়া ২৩টি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দরপত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে, যার মোট ক্ষমতা প্রায় সাত হাজার ৪৬২ মেগাওয়াট। অন্যদিকে প্রায় ২০ হাজার ১৫৬ মেগাওয়াট ক্ষমতার ১৯টি বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিকল্পনাধীন আছে।’

বর্তমানে এক হাজার ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছে জানিয়ে বিদ্যুৎ সচিব বলেন, ‘আরও প্রায় এক হাজার ৮৩৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির কার্যক্রম চলমান রয়েছে। আঞ্চলিক সহযোগিতা কার্যক্রমের আওতায় ২০২১ সালের মধ্যে পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে ৯ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।’

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এলাকার বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বোর্ড দরপত্র আহ্বান করেছে বলেও জানান তিনি।

আহমদ কায়কাউস বলেন, ‘সরকার ২০২১ সালের মধ্যে সবার জন্য বিদ্যুৎ সুবিধা নিশ্চিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এ অঙ্গীকার বাস্তবায়নে ইতোপূর্বে ৮০টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় এসেছে। আগামীকাল আরও ১০২টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের শুভ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে।’

সচিব বলেন, ‘এ ছাড়া আরও ৫৮টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসছে। এগুলোও উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে।’

আগামী এক বছরের মধ্যে বাকি উপজেলাগুলো শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আসবে বলেও জানান বিদ্যুৎ সচিব।

উপজেলাগুলো হচ্ছে- নবাবগঞ্জ, দোহার, কাশিয়ানী, মুকসুদপুর, গোপালগঞ্জ সদর, মিঠামইন, তাড়াইল, ইটনা, হোসেনপুর, কিশোরগঞ্জ সদর, বাজিতপুর, শ্রীমঙ্গল, নাটোর সদর, নলডাঙ্গা, গুরুদাসপুর, পুঠিয়া, চারঘাট, বাঘা, তানোর, চিতলমারী, চৌগাছা, ঝিকরগাছা, কেশবপুর, জীবননগর, দামুড়হুদা, পিরোজপুর সদর, হরিরামপুর, সাটুরিয়া, ঘিওর, আত্রাই, মহাদেবপুর, রানীনগর, নিয়ামতপুর, ঝালকাঠি সদর, রাজাপুর, পাবনা সদর, বিশ্বনাথ, গোলাপগঞ্জ, জৈন্তাপুর, বালাগঞ্জ, ডুমুরিয়া, ফেনী সদর, কুষ্টিয়া সদর, কুমারখালী, ফুলবাড়ি কাহারোল, রামগঞ্জ, রাঙ্গুনিয়া, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, আনোয়ারা, বিজয়নগর, কসবা, বাঞ্ছারামপুর, চান্দিনা, ব্রাহ্মণপাড়া, লালমাই, তিতাস, মেঘনা, হোমনা, দাউদকান্দি, নাঙ্গলকোট, বুড়িচং, লাকসাম, চৌদ্দগ্রাম, চাটখিল, সোনাইমুড়ী, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, তারাগঞ্জ, রংপুর সদর, তালা, কক্সবাজার সদর, টেকনাফ, গাংনী, দৌলতখান, তজুমুদ্দিন, সিরাজগঞ্জ সদর, রায়গঞ্জ, তাড়াশ, চৌহালী, মাদারীপুর সদর, নীলফামারী সদর, কালিগঞ্জ, কালিয়াকৈর, শরীয়তপুর সদর, ডামুড্যা, চাঁদপুর সদর, শাহরাস্তি, হাজিগঞ্জ, হাইমচর, সোনারগাঁ, নন্দিগ্রাম, সোনাতলা, দুপচাঁচিয়া, বগুড়া সদর, কাহালু, আলমদিঘী, শাহজাহানপুর, চরভদ্রাসন, আলফাডাঙ্গা, মাগুরা সদর ও শ্রীপুর।

৭টি বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

বিদ্যুৎ সচিব বলেন, ‘বিদ্যুৎ খাতের দীর্ঘমেয়াদী মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে বৃহস্পতিবার বড়পুকুরিয়ায় ২৭৫ মেগাওয়াট কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র, ব্রাহ্মণগাঁও ১০০ মেগাওয়াট ডিজেল চালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্র, আওরাহাটি ১০০ মেগাওয়াট ফার্নেসওয়েল চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র, কড্ডা ১৪৯ মেগাওয়াট ফার্নেস ওয়েলভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র, পানগাঁও ৩০০ মেগাওয়াট ডিজেল চালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র, সিরাজগঞ্জ ১৪১ মেগাওয়াট ডুয়েল ফুয়েল কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র ও টেকনাফ ২৮ মেগাওয়াট সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী আশুগঞ্জ ৪০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন জানিয়ে আহমদ কায়কাউস বলেন, ‘একই সঙ্গে বৃহস্পতিবার ডেসকোর প্রধান কার্যালয় ভবন নির্মাণ কার্যক্রম উদ্বোধন হবে।’

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম জানান, প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কাঞ্চন সেতুর কাছে পিতলগঞ্জ থেকে হযরত শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কুর্মিটোলা এভিয়েশন ডিপো পর্যন্ত বিমানের তেল সরবরাহের পাইপলাইন স্থাপন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তরও উদ্বোধন করবেন।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!