| | রবিবার, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী |

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসার আগে নিজেরা বসছে ঐক্যফ্রন্ট

প্রকাশিতঃ ৩:২৪ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ৩০, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার : ১ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপে বসছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তবে এর আগে আজ (মঙ্গলবার) বিকেল ৪টায় বৈঠকে বসছেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা।

গণফোরাম সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেন নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে রবিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে সাত দফা দাবি এবং ১১টি লক্ষ্য সংবলিত চিঠি দেয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। মঙ্গলবার সকালে সে চিঠির জবাব আসে ড. কামালের বাসায়।

প্রধানমন্ত্রীর প্যাডে লেখা চিঠিতে বলা হয়, অনেক সংগ্রাম ও ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে সংবিধানসম্মত সকল বিষয় আলোচনার জন্য আমার দরজা সর্বদা উন্মুক্ত। তাই আলোচনার জন্য আপনি যে সময় চেয়েছেন, সে পরিপ্রেক্ষিতে আগামী ১ নভেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় আপনাদের আমি গণভবনে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

মতিঝিলে ড. কামালের চেম্বারে আজকের বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে কে কে যাবেন সে বিষয়টি আজকের বৈঠকে নির্ধারণ করা হতে পারে বলে অসমর্থিত একটি সূত্রে জানা গেছে।

সূত্রটি জানিয়েছে, ১৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল চূড়ান্ত করা হতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংলাপে কী কী বিষয় উঠে আসতে পারে সে বিষয়েও আলোচনা হতে পারে আজকের বৈঠক।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করে বেকায়দায় থাকা বিএনপি বহুদিন ধরেই সংলাপের আহ্বান জানিয়ে আসছিল। তবে ক্ষমতাসীনরা সে আহ্বানে পাত্তা দেয়নি।

এরপর গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, জাসদ একাংশের সভাপতি আ স ম আব্দুর রব ও বিএনপি এক কাতারে এসে গঠিত হয় নতুন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে রবিবার চিঠি দেয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আওয়ামী লীগের তরফ থেকে এই আহ্বানে ইতিবাচক সাড়া পাওয়ার বিষয়টি রাজনীতির জন্য ইতিবাচক বলে মনে করা হচ্ছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares