| |

গোদাগাড়ী পদ্মা নদীতে অবাধে মা ইলিশ শিকার

প্রকাশিতঃ 11:35 pm | October 17, 2018

নিজস্ব প্রতিবেদক গোদাগাড়ী : পদ্মা নদীতে অবাধে মা ইলিশ ধরা হচ্ছে। মা ইলিশ রক্ষা করতে ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত নদীতে ইলিশ মাছ ধরা,মজুদ ও বিক্রীয় করার উপড় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। কিন্ত প্রসাশনের নজরদারির অভাবে পদ্মা নদীতে এক শ্রেণীর জেলারা কারেন্ট জাল দিয়ে মা ইলিশ ধরে নদীর পাড়েই বিক্রি করছে। স্থানীয় সুত্র জানায় রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার সুলতানগঞ্জ,সারাংপুর,ভগমন্তপুর,হাটপাড়া,কুঠিপাড়া,বারুইপাড়া,রেলবাজার,মাটিকাটা,মাদার পুর,হরিমংকর পুর,ভাটো পাড়া, পিরিজ পুর,বিদির পুর,প্রেমতলী, খরচাকা এলাকায় পদ্মা নদীতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ছোট ছোট নৌকা নিয়ে নদীতে মা ইলিশ ধরা হয়।

সকালে জেলেদের ধরা পড়া মাছ খুব ভোরে ও সন্ধার আগে নদীর পাড়ে নিয়ে আসার পর বিক্রি করা হয়। প্রতি কেজি ইলিশ ২৫০ থেকে ৪০০ টাকা ধরে বিক্রি হচ্ছে। কম দামে ইলিশ পাওয়ায় নদীর পাড়ে ভীড় জমাচ্ছে ক্রেতারা। স্থানীয় আরো জানায় সুলতানগঞ্জ ,সারাং পুর প্রেমতলী ও নদীর ওপারে আলাতুলী এলাকায় বেশি মা ইলিশ ধরা পড়ছে।

এসব এলাকায় প্রশাসনের নজরদারি কম থাকার কারণে জেলেরা সহজেই মা ইলিশ ধরতে পারছে। গোদাগাড়ী সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শামসুল করিম বলেন মৎস্য বিভাগের জনবল কম হওয়ায় উপজেলা সব এলাকায় একযোগে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে বিজিবি, পুলিশের সহযোগিতায় মৎস্য বিভাগ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

গত কয়েকদিনে অভিযানে নিষিন্ধ কারেন্ট জাল আটক, মা ইলিশ জব্দ,নৌকাসহ জেলেদের ধরে জরিমানা করেছে ভ্রম্যমান আদালত। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও)শিমুল আকতার বলেন নিষেধাজ্ঞা চলাকালিন সময়ে পদ্মা নদীতে কোন কোন অবস্থায় মা ইলিশ ধরতে দেওয়া হবে না। ভ্রম্যমান আদালতের অভিযান জোরদার করা হচ্ছে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares