| | বুধবার, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী |

পটিয়ার আশিয়ার মানুষের চরম দূর্ভোগ বাঁশের সাঁকো যেন মরণ ফাঁদ!

প্রকাশিতঃ ১১:৩৮ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৪, ২০১৮

পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরী : চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার আশিয়া ইউনিয়নের ১শ গজের ব্যবধানে দুটি ঝূকিপূর্ন বাঁশের সাঁকো। আর এ বাঁশের সাঁকো দিয়ে প্রতিদিন প্রাইমারী ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থী ছাড়াও, গ্রামবাসী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়ত করে। স্কুলের শিক্ষার্থীরা তাঁদের পিঠে স্কুলের ব্যাগ ও হাতে ভাতের টিফিন বক্স নিয়ে প্রতিদিন পারাপার করে থাকে। এর মধ্যে বাঁশের সাঁকো থেকে ছিটকে পড়ে গিয়ে অনেকে আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে এবং আরো যে কোন মুহুর্তে বাঁশের সাঁকো ভেঙ্গে খালে পড়ে প্রাননাশের আশঙ্কাও রয়েছে স্থানীয়দের।

এমন দৃশ্য দেখা যায় পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ আশিয়া গ্রামে। জোয়ার-ভাটা আশিয়া খালের নাপিতখালী ব্রীজের উপর ১শ গজের ব্যবধানে রয়েছে ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের দুটি সাঁকো। গত ১০ বছর আগে ব্রীজটি ভেঙ্গে পড়লেও পরবর্তীতে মেরামতের কোন উদ্যোগ না নেওয়ায় এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও এ খালের ভাঙ্গনে এলাকার বেশ কিছু রাস্তা পর্যন্ত খালের গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। বর্তমানে গাড়ী চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। সরকারীভাবে কোনো সহযোগীতা না পাওয়ায় গ্রামবাসী তাঁদের অর্থে খালের উপর বাঁশের সাঁকো তৈরী করে যাতায়াত করছে বলে মোহাম্মদ জসিম উদ্দীন জানান।

বর্তমান সংসদ সদস্য গত ১০ বছরে ২ হাজার কোটি টাকার পটিয়ায় উন্নয়ন করছে মর্মে প্রচার করলেও আশিয়া ইউনিয়নে এ দুটি বাঁশের সাঁকো সহ তেমন উন্নয়ন কর্মকান্ড না হওয়ায় স্থানীয় জনগণের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এছাড়াও এমিপ’র প্রকল্প উন্নয়ন কর্মকান্ডের টাকা হরিলুট হয়েছে বলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জানান। গত ৫ অক্টোবর উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের সিকদার পাড়া সড়কের ২৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে কার্পেটিং কাজ শেষ না হতেই উঠে যাওয়ায় এলাকাবাসী কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

এ নিয়ে জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে স্থানীয় এমপি’র টনক নড়ে। জন¯্রুতি রয়েছে স্থানীয় এমপি’র পক্ষে পটিয়ার সংবাদ কর্মীরা রিপোর্ট প্রদান করলে সে তাদের উপর খুশি থাকে এবং তাদেরকে বকশীষ প্রদান করে ও আরো বেশি করে তার পক্ষে লেখার জন্য। যাতে উন্নয়ন প্রকল্পের অনিয়ম দূর্নীতি গুলো ধামাচাপা পরে বলে এমন অভিযোগ করেন পটিয়ার জাপার সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, বিএনপির সাবেক এমপি গাজী শাহজাহন জুয়েল, আ’লীগের সাবেক মহিলা এমপি বেগম চেমন আরা তৈয়ব, যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম, জাপার কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান পৌর মেয়র সামশুল আলম মাষ্টার, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইদ্রিস মিয়া, সাবেক কমিশনার নুরুল ইসলাম সহ আরো অনেকেই।

আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে আশিয়া ইউনিয়নে সচেতন যুবকরা তাদের এলাকায় উন্নয়ন কর্মকান্ড না হওয়ায়, সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকের মাধ্যমে ব্রীজ, কালভার্ট, রাস্তা ভাঙ্গাচোরার ছবি আপলোড করে তীব্র প্রতিবাদ করছে। এতে এলাকার জনমনে চরম ক্ষোভ রয়েছে।

১৯৯০ সালে ঐ এলাকার মানুষ যেই রাস্তা দিয়ে স্বাচন্দে চলাচল করতো বর্তমানে তা আরো বেশি অবহেলিত। আশিয়া ইউনিয়ন থেকে পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাফফ্র আহমদ চৌধুরী টিপু নির্বাচিত হলেও প্রকৃতপক্ষে ঐ এলাকার সাধারণ মানুষ উন্নয়ন বঞ্চিত বলে স্থানীয় ব্যবসায়ী মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন জানান।

এলাকাবাসী অবিলম্বে অবহেলীত আশিয়া ইউনিয়নের ব্রীজ, কালভার্ট, রাস্তা-ঘাটের উন্নয়নে চট্টগ্রামের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares