| | সোমবার, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১১ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী |

মালয়েশিয়া সফরে গিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের পাশে দাড়ালনে পাসর্পোট র্কমর্কত আবু সাইদ

প্রকাশিতঃ ৪:৪২ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৭, ২০১৮

আতিয়ার রহমান খুলনা অফিস : খুলনা আঞ্চলকি পাসর্পোট অফিসের পরিচালক গত ১৬ আগষ্ট মালয়শিয়ার আলাম দামাই বাংলাদশেী হাই কমশিনে সফরে যান। সখোনে স্টুডেন্ট, র্কমরত শ্রমিক, ও স্থানীয়, প্রবাসী বাংলাদেশীরা আবু সাইদের কাছ থেকে পাসর্পোট বিষয়ে বিভিন্ন রকমের সেবা পেয়ে উপকৃত হন।

সে কারণে প্রবাসী এক ব্যক্তি ফেজবুকে স্ট্যাটাজ দিয়ে আবু সাইদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন খুলনা বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসের পরিচালক আবু সাইদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও আন্তরিক প্রচেষ্টায় এ অঙ্গনের সকল অনিয়ম দূরিভূত হয়েছে বরে পাসপোর্ট প্রার্থীরা জানিয়েছেন ।

ইতোপূর্বে পাসপোর্ট পাওয়ার জন্য আবেদন কারীরা পদে পদে হয়রানির শিকার হতেন। দালালদের খপপরে পড়ে আর্থিক ক্ষতির সম্মূখীন হতেন। অফিসের কিছু দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তা কর্মচারী ও উপরি আয়ের জন্য সেবা প্রার্থীদের নানাভাবে হয়রানি করতেন।
সেই তুখলকি কান্ড তিনি বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে এ প্রতিষ্ঠান এখন সেবালয়ে পরিনত হয়েছে। খুলনা পাসপোর্ট অফিসে সেবার মান বেড়েছে। সেবা প্রার্থীদের কাছে খোজ খবর নিয়ে জানা গেছে তারা এখন সুষ্ঠুভাবে সেবা পাচ্ছেন। নুতন পাসপোর্ট প্রাপ্তি বা নবায়ন কোন কাজেই একর আর তারা হয়রানির শিকার হচ্ছেন না।

আবু সাইদের এ অফিসে যোগদানের পর থেকে দাপ্তরিক কাজে কর্মচাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি অনিয়ম দূর্নীতি ও হ্রাস পেয়েছে।সূত্র জানায় গত ১৬ আগষ্ট তিনি মালয়েশিয়া ভ্রমনে যান। ওই সময় তিনি সমস্যা গ্রস্থ প্রবাসী বাংলাদেশীদের পাশে দাড়ান। জানাগেছে মালয়েশিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ হাই কমিশিনের উদাসীনতার কারনে বহু প্রবাসী বাংলাদশেী হয়রানির শিকার হচ্ছেন।
পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয় সহ নান কারনে তারা বাংলাদেশ হাই কমিমিনের দ্বাররস্ত হন। কিন্তু কাংখিত সেবা না পেযে হতাশ হযে পেড়েন। পাসপোর্ট কর্মর্কতা আবু সাইদ প্রবাসী বাংলাদেশীদের সে করন চিত্র প্রত্যক্ষ করেন।

স্বদেশের মানুষের এই হীন দশা থেকাপর পর তিনি বিদেশ বিভূইয়ে সেবাপ্রার্থীদের নানা ভাবে সেবা দিতে থাকেন। এভাবে এক মাস যাবত তিনি মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের সেবা দান করেন। সম্প্রতি মালয়েশিয়া প্রবাসী এক ব্যক্তি সেবা পাওয়ায় আবু সাইদ এর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এক চিঠিতে প্রবাসী ওই ব্যক্তি উলে¬খ করেছেন আমরা যারা মালয়েশিয়া প্রবাসি আছি তারা আপনার কাছে চির কৃতজ্ঞ। শুধু আপনার আসা এই কয়েক দিনে।

আমার কাযেক বার হাই কমিশন যাওয়ার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি এ রকম যদি অফিস কর্মকর্তারা সকল প্রবাসীদের সাথে সদাররণ করে, আমার এই ক্ষুদ্র্র জ্ঞানে মনে হয় আর ৫ টা হাই কমিশন অফিসের মত আমাদের হাই কমিশন অফিস ও হবে। স্যার প্রবাসী রা কত কষ্ট করে অর্থ জোগাড় করে সেটা যদি দেশের মানুষ দেখতো তাহলে তাদের সন্তান, স্বামি, ভাই কাওকে বিদেশ আসতে দিত না। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কাজে হাই কমিশন অফিসের সরোপন্ন হতে হয়, তবে দু:খের বিষয় এই যে, সেখান থেকেও মাঝে মাঝে অনেক প্রবাসী দের কে বিভিন্ন ভাবে হয়রানির স্বিকার হতে হয় যা মোটেও তাদের কাছ থেকে কাম্য নয়।

এমন কি অফিস কর্মকর্তারা তাদের কে বুঝানোর মত ক্ষমতা টুকু রাখে না। আপনার আসাতে ও অফিসের কাজ কর্ম দেখে সত্যি গর্ব করার মত ছিল। এমন যদি আমরা প্রবাসীরা সেবা পেতাম তা হলে দিনের পর দিন হয়রানি আর দালাল দের কাছে যেতাম না। সত্যি স্যার আপনার জন্য গর্ব করা যায়। আপনার এই ক্ষনেকের আসার জন্য আমরা ধন্য। লেখাগুলো মালোয়শিয়া প্রবাসীর ফেসবুক ওয়াল থেকে নেয়া।

এব্যাপারে মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ হাই কমিশন থেকে পাসপোর্ট নবায়নের বিষয়টি খুলনা বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসের পরিচালক আবু সাইদ বলেন, মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশের হাই কমিশন রয়েছে। এই হাই কমিশন থেকে মালয়েশিয়ার সাথে বাংলাদেশের কূটনৈতিক কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

দেশটির সাথে বাংলাদেশের আন্তঃদেশীয় সম্পর্ক উন্নয়নে দূতাবাস কাজ করে। কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশী হাই কমিশন সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশীদেরকে বিভিন্ন সেবা দিয়ে থাকে। মালয়েশিয়াতে বসবাসকারী বাংলাদেশী নাগরিক, শ্রমিক বা অধ্যায়নরত ছাত্র-ছাত্রীরা অন্য দেশে যাওয়ার জন্য কিংবা পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে দূতাবাস থেকে নতুন করে পাসপোর্ট করে থাকেন। পাসপোর্টের নির্দিষ্ট মেয়াদ থাকে। মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে পাসপোর্ট নবায়ন করতে হয়। বাংলাদেশ হাই কমিশন আবেদনের প্রেক্ষিতে পাসপোর্ট নবায়ন করে থাকে।

এছাড়া পাসপোর্ট নবায়ন করতে হলে কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশী হাই কমিশনে আবেদন করতে হবে। আবেদনের সাথে পাসপোর্ট নীতিমালার চাহিদা অনুযায়ী কাগজপত্র দাখিল করতে হবে। জররি এবং সাধারণ আবেদনের জন্য নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ করতে হবে। কাগজপত্রসহ ফি জমাদানের ¯ি¬প কনস্যুলার কাউন্টারে দাখিল করতে হবে। হাই কমিশনের কর্মকর্তা কাগজপত্র যাচাই বাছাই এবং পাসপোর্ট গ্রহণকারীর তথ্য ভেরিফাই করে নির্ধারিত সময়ে পাসপোর্ট নবায়ন করবেন।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares