| | মঙ্গলবার, ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

গৌরীপুরে ৪৯ টি স্থায়ী-অস্থায়ী পূজা মন্ডপে শারদীয় দুর্গা পূজার প্রস্তুতি

প্রকাশিতঃ ৯:৩০ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৫, ২০১৮

কমল সরকার, গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলায় ৪৯টি স্থায়ী-অস্থায়ী পূজা মন্ডপে হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ব বৃহৎ ধর্মীয় অনুষ্ঠান শরত কালের অকাল বোধন শারদীয় দুর্গোৎসব আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে। তাই এই বিশাল ধর্মীয় উৎসব উদযাপনের প্রায় সকল প্রস্ততি ইতিমধ্যেই নেয়া হয়েছে। দুর্গোৎসবের বাকী আর মাত্র কয়েক দিন। এরি মধ্যে গৌরীপুরের শিল্পীরা দুর্গা প্রতিমা নির্মানের মাটির কাজ প্রায় শেষ করে এনেছেন।

এ ছাড়া সার্বজনিন ন্থায়ী মন্দির গুলো ঝাড়-মুচ রং ও অস্থায়ী মন্দির নির্মান, প্যান্ডেল, তোরণ নির্মানের নির্মান সামগ্রী সংগ্রহসহ পুজায় আলোকসজ্জা ও ঢাকি বায়নার কাজও আগে-বাগেই এগিয়ে রেখেছে অনেক পূজারী। বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ গৌরীপুর শাখার সাধারন সম্পাদক শ্যামল কর সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, এ বছর গৌরীপুর পৌর শহরের ১৪টি পূজাসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে সর্বমোট ৪৯টি পূজা অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তার মাঝে পৌর শহরের ঋষিবাড়ী স্থায়ী দুর্গা মন্দির,বাগানবাড়ী স্থায়ী মন্দির,সরকার পাড়া অস্থায়ী মন্দির, কালিখলা স্থায়ী মন্দির, দুর্গাবাড়ী স্থায়ী মন্দির, মাষ্টার পাড়া অস্থায়ী মন্দির, মধ্যবাজার অস্থায়ী মন্দির, মধ্যবাজার স্থায়ী পাল মন্দির, ষ্টেশনরোড অস্থায়ী মন্দির, হরিজনপল্লী স্থায়ী মন্দির, চকপাড়া অস্থায়ী মন্দির,পূর্ব দাপুনিয়া, পাছেরকান্দা বর্ধন পাড়া, পুরাতন রাইসমিল অস্থ্্ায়ী মন্দিরসহ উপজেলার গৌরীপুর ইউনিয়নে ২টি, রামগোপালপুর ইউনিয়নে ৪টি, সিধলা ইউনিয়নে ২টি, ডৌহাখলা ইউনিয়নে ৯টি, অচিন্তপুর ইউনিয়নে ৩টি, মইলাকান্দা ইউনিয়নের শ্যামগঞ্জ বাজারে ৬টি,সহনাটি ইউনিয়নে ১টি,মাওহা ইউনিয়নে ৩টি,ভাংনাবাড়ী ইউনিয়নে ১টি ও বোকাইনগর ইউনিয়নে ৪টি সার্বজনিন স্থায়ী-অস্থায়ী মন্দিরে বারোয়ারী শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। দুর্গাপূজায় আইন শৃংখলা ও সুষ্ঠভাবে পুজানুষ্ঠানের লক্ষে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর প্রশাসন পৃথকভাবে আলোচনা সভা করে সার্বিক নিরাপত্তামুলক ব্যবস্থা গ্রহন করেছে।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares