| |

শার্শা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে চলছে সাধারণ গ্রাহকের সাথে দুর্নীতি

প্রকাশিতঃ 2:26 pm | September 26, 2018

এবিএস রনি, শার্শা (যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১, এর আওতাভুক্ত শার্শা জোনাল অফিস ও বাগআঁচড়া সব জোনাল অফিসে চলছে সাধারণ গ্রাহকের সাথে নানা রকম দুর্নীতি। প্রতিনিয়ত সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হচ্ছে এই শার্শা জোনাল পল্লী বিদ্যুৎ ও বাগআঁচড়া সাব জোনাল পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে এসে।একই সাথে গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিলে নিদিষ্ট এমাউন্ট ছাড়া বেশি বিল লেখা হচ্ছে বলেও অভিযোগ।

এক মাসের বিল ব্যাংকে জমা দিলেও শার্শা বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের একজন কর্মকর্তা সাধারণ গ্রাহকের সাথে খুবিই খারাপ আচরণ করতে থাকে।মোছাঃ নাজমা বেগম, গ্রামঃ সদ্দার বারিপোতা, নাভারণ শার্শা তিনি বলেন, আমি জুন মাসের বিল নাভারন ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড নাভারণ শাখায় দেয়া সত্ত্বেও শার্শা বিদ্যুৎ জোনাল অফিস পুনরায় সেই বিলটি আবারো অন্য মাসের বিলের সাথে যুক্ত করে দেয়।

তিনি শার্শা জোনাল বিদ্যুৎ অফিসে ওই বিলের কাগজসহ ব্যাংকের স্টেটমেন্ট নিয়ে এলেও তারা ওই ব্যাংক স্টেটমেন্ট মানতে রাজি নয়।আবারো সেই জুন মাসের বিল শার্শা জোনাল অফিস ওই ব্যক্তির কাছ থেকে নিয়েছে। শার্শা পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসে থাকা সাধারণ গ্রাহকরা বলেন, এখন যে বিলের কাগজ প্রস্তুত করছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট নয়।

একই মাসের বিদ্যুৎ বিল পরবর্তী বিদ্যুৎ বিলের সাথে যোগ করে দিচ্ছে বারবার, আমরা মূর্খ সূর্খ মানুষ এত জটিলতা না করে বিগত বছরের বিল যেমন ভাবে তৈরি করছিল শার্শা পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিস। সেই রকম ভাবেই আগামী বিলগুলো তৈরি করা হোক এতে করে সাধারন জনগনের ভোগান্তি কমবে।এ ব্যাপারে শার্শা পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের (ডিজিএম) রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, ভূলত্রুটি হতে পারে পরবর্তীতে এ ধরনের কোনকোন অভিযোগ এলে বিষয়টি সংসোধন করে দেয়া হবে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares