| |

ঈদের ছুটি শেষে রাজধানীতে ফিরছে মানুষ

প্রকাশিতঃ 2:59 am | August 26, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : ঈদের ছুটি শেষে প্রথম কর্মদিবস শুরু হবে আজ রোববার। চিরচেনা সেই নগরীর পুরনো রূপ ফিরিয়ে দিতে ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছে মানুষ।

গতকাল শনিবার ভোর থেকেই দক্ষিণাঞ্চল থেকে আসা লঞ্চগুলোতে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছেন কর্মজীবী ও সাধারণ মানুষ।

ফলে ভোর থেকেই যেন সদরঘাটে ঈদ শেষে ফেরা মানুষের ঢল নেমেছে। অন্যান্য ঈদে সাধারণত পরদিন থেকেই সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে রাজধানীমুখী যাত্রীদের ভিড় বাড়তে থাকে। আগামীকাল রোববার থেকে সরকারি অফিস পুরোদমে শুরু হওয়ার কারণে এবার রাজধানীমুখী যাত্রীরা কিছুটা দেরিতে ফিরছেন। ফলে ঈদের পর প্রথম দুইদিন তেমন ভিড় লক্ষ করা যায়নি। রাজধানীর গাবতলী, যাত্রাবাড়ী ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে দেখা গেছে মানুষের উপচেপড়া ভিড়। ছুটি শেষে ঢাকায় কর্মরত উত্তর, পূর্ব ও দক্ষিণবঙ্গের মানুষদের ঢল নামে বাসস্ট্যান্ড-গুলোতে। ঢাকামুখী ট্রেনগুলোতেও ভিড় দেখা গেছে।

গতকাল শনিবার রাজধানীর বিমানবন্দর স্টেশনের বেলা সোয়া ১১টায় এসে দাঁড়ায় দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা একতা এঙ্প্রেস। এ ট্রেনের যাত্রী জহুরুল হক বেসরকারি চাকরিজীবী। প্রিয়জনদের সঙ্গে গ্রামে ঈদের চারদিন ছুটি কাটিয়ে দিনাজপুর থেকে ঢাকায় ফিরলেন আজ।

তিনি বলেন, স্বজনদের ছেড়ে আসা খুবই বেদনার। ঈদে বাড়ি ফেরা থেকেই আনন্দ শুরু হয়ে যায়। কিন্তু প্রিয়জনদের ছেড়ে যখন ফিরে আসতে হয় তখনই শুরু হয় কষ্ট। তবুও জীবিকার তাগিদে ফিরে আসতে হয়।

একই ট্রেনের আরেক যাত্রী সিদ্দিকুর রহমান বলেন, বাড়িতে গেলে ফিরে আসতে ইচ্ছে করে না। কিন্তু জীবিকার কারণে বাধ্য হয়েই ফিরতে হয়। রোববার থেকে আবার শুরু যান্ত্রিক জীবন। ছয় বছরের মেয়ে আর স্ত্রীকে নিয়ে গ্রামে গিয়েছিলাম। সেখানকার সবুজ আর খোলা পরিবেশে মাঠ, আর দাদা-দাদিদের ছেড়ে মেয়ে আসতেই চাইছিল না। কারণ ইট পাথরের যান্ত্রিক শহরে তো এসব পায় না। তবুও ফিরতে হয়।

বিমানবন্দর স্টেশনে কর্মরতদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঈদে বাড়ি যাওয়ার সময় যেমন যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ ছিল, ফিরে আসার সময় তেমন চাপ নেই। যাত্রীরা ঈদ আনন্দ শেষে ভোগান্তি ছাড়াই ফিরছেন রাজধানীতে।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares