| | বুধবার, ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী |

রাজধানীতে বাস চাপায় ২ শিক্ষার্থী নিহতের দ্রুত বিচার দাবি যাত্রী অধিকার আন্দোলনের

প্রকাশিতঃ ১২:২২ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ৩০, ২০১৮

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত ও ১৩ জন আহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছে যাত্রী অধিকার আন্দোলন।

রবিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে যাত্রী অধিকার আন্দোলনের আহ্বায়ক কেফায়েত শাকিল ও যুগ্ম আহ্বায়ক অন্তু মুজাহিদ এ ঘটনার নিন্দা ও শোক জানান।

বিবৃতিতে তারা নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। এসময় তারা আহতদের উন্নত চিকিৎসায় সরকারকে দায়িত্ব নিতে এবং দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি করেন।

যাত্রী অধিকার আন্দোলন নেতৃবৃন্দ বলেন, রাজধানীর কুর্মিটোলার বিমানবন্দর সড়কে পুটপাথে দাঁড়িয়ে থাকা শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীদের উপর বাস উঠিয়ে দেয়ার ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। শিক্ষার্থীরা নিরাপদে পুটপাথে থেকেও ঘাতক বাস থেকে রেহায় পায়নি। এটা একরকম হত্যাকাণ্ড। প্রতিনিয়ত এসব দেখে মনে হচ্ছে পরিবহন মালিক শ্রমিকরা দেশের জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করেছে। দ্রুত এর সুষ্ঠু ও দৃষ্টান্তমূলক বিচার প্রয়োজন। নয়লে জনগণও পরিবহনশ্রমিকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমে গেলে বিপদ আছে।

তারা বলেন, আমরা গণমাধ্যমে জেনেছি বেশি যাত্রী পেতে অপর পরিবহনের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে এঘটনা ঘটিয়েছে চালক। পুটপাথে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষের উপর গাড়ি উঠিয়ে দেয়া প্রমাণ করে সড়কের কোথাও আজ জনগণের নিরাপত্তা নেই। আর এসব ঘটনার জন্য বিচারহীনতাই সবচেয়ে বেশি দায়ী।

বিচার না হওয়া ও নিয়ন্ত্রণহীনতার কারণে সড়কে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে দাবী করে যাত্রীদের অধিকার ও সচেতনতা নিয়ে কাজ করা সংগঠনটির নেতারা বলেন, আমরা বার বার বলে আসছি নিয়ন্ত্রণহীনতার কারণে এদেশের গণপরিবহন এখন একশ্রেণির সন্ত্রাসীদের দখলে চলে গেছে। এরা ব্যবসার জন্য মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। সম্প্রতি সময়ে সড়কে ঘটা আলোচিত ঘটনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় এরা আরো বেপরোয়া হয়েছে। রাজীব, রোজিনাদের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার হলে কিছুটা হলেও পরিবহনের শৃঙ্খলা ফিরে আসতো। কিন্তু তার বিপরীতে প্রকাশ্যে ইচ্ছাকৃত চাপা দিয়ে হত্যার পরও বাস চালকদের ছাড়া পেয়ে যেতে দেখে হতাশ হওয়া ছাড়া আমাদের আর কিছু করার থাকে না।

বিবৃতিতে তারা সড়কে নিহতের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড নির্ধারণ ও গণপরিবহনব্যবস্থা শৃঙ্খলে আনতে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণসহ যাত্রী অধিকার আন্দোলন ঘোষিত ৮ দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়ন করে জনগণকে নিরাপদ সড়ক উপহার দিতে সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান।

Matched Content

দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares