| |

রহস্যজনক অগ্নিকান্ডে ভষ্মীভূত বাকৃবি’র অনুষ্ঠানের প্যান্ডেল

প্রকাশিতঃ 1:22 am | July 23, 2018

স্টাফ রিপোর্টার : গত ২১ জুলাই বাংলাদেশ বৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাফল্য ও গৌরবের ৫৭ বছর উদযাপন অনুষ্ঠানের আগে গত রোববার দিবাগত রাতে আনুমানিক সময় ১১ টার দিকে রহস্যজনক অগ্নিকান্ডে সুসজ্জিত অনুষ্ঠান স্থান পুড়ে ভষ্মীভূত হয়ে যায়। মুহুর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা গ্রাস করে মঞ্চ, প্যান্ডেল, ত্রিপাল, শ’শ ফ্যান, ককশিট, কাগজ ও কাপড়ের ডেকোরেটর, হাজার হাজার দামী দামী চেয়ার, আসবাবপত্রসহ অসংখ্য জিনিসপত্র।

দ্রুত ফায়ার সার্ভিস এসেও রক্ষা করতে পারেনি কিছুই। অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ে জমেছিল আনন্দের বন্যা। কখন সকাল হবে সেই প্রতীক্ষায় ছিলেন হাজার হাজার মানুষ। এর পূর্বেই রাতে জমে উঠেছিল আতশবাতির রোশনাই। চতুর্দিকে পাহারায় ব্যস্ত ছিলেন সরকারী বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা। এর মধ্যে কেমন করে ধরল এমন আগুন প্রশ্নটি এখন সবার মধ্যে। মিলছেনা কোন উত্তর। যদিও ফায়ার সর্ভিস বলছে সর্ট সার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত। সরেজমিন পরিদর্শনে লোক জনের নানা ধরনের মন্তব্য। কেউ বলছেন, এতবড় অডিটরিয়াম থাকতে কেন কোটি কোটি টাকা খরচ করে এত আয়োজন। অনুষ্ঠানের বিভিন্ন কাজের ঠিকাদারী নিয়েও কারও কারও বিরোধ ছিল। কি প্রয়োজন তাহলে অডিটরিয়ামের। কেহ বলছেন, ফায়ারসার্ভিসের কর্মিরা আসতে না আসতেই সব জ্বলে-পুরে ছাই হয়ে যায়।

এত নিরাপত্তার মধ্যে কেমন করেই বা হল এমন ধ্বংসযজ্ঞ। তাহলে সাধারনের অবস্থা কি হবে? উল্লেখ্য গতকাল ২২ জুলাই রবিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি চত্বরে বাকৃবির সাফল্য ও গৌরবের ৫৭ বছর উদযাপন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশ কৃষিবিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

ধংসযজ্ঞের পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মোঃ আব্দুল হামিদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ আলী আকবর।


দৈনিক সময় সংবাদ ২৪ ডট কম সংবাদের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি,আলোকচত্রি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে র্পূব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সর্ম্পূণ বেআইনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে কোন কমেন্সের জন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী নয়।


Shares
error: Content is protected !!